রবিবার ২৮ নভেম্বর, ২০২১ | ১৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮

সেই এয়ার ইন্ডিয়া ৬৮ বছর পর কিনে নিল টাটা গ্রুপ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : | শুক্রবার, ০৮ অক্টোবর ২০২১ | প্রিন্ট  

সেই এয়ার ইন্ডিয়া ৬৮ বছর পর কিনে নিল টাটা গ্রুপ

ফাইল ছবি : পিটিআই

৬৮ বছর ভারতের রাষ্ট্রায়ত্ত্ব বিমান সংস্থা এয়ার ইন্ডিয়াকে কিনে নিয়েছে টাটা গ্রুপ। শুক্রবার প্রায় ১৮ হাজার কোটি টাকায় রাষ্ট্রায়ত্ত্ব বিমান সংস্থাকে কিনে নেয় তারা। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়া।


খবরে বলা হয়, শুক্রবার স্থানীয় সময় বিকাল ৪টায় সংবাদ ব্রিফিংয়ে ভারতীয় সরকারের পক্ষ থেকে এই খবর জানানো হয়। নিলামে দ্বিতীয় স্থানে ছিলেন স্পাইসজেটের প্রধান অজয় সিং। তাঁদের দরপত্র ছিল প্রায় ১৫ হাজার ১০০ কোটি টাকা। নতুন ডানায় ভর দিয়ে উড়ান শুরু করল এয়ার ইন্ডিয়া। গত বেশ কয়েক বছর ধরে দেনার ভারে জর্জরিত এয়ার ইন্ডিয়া। উপায় হিসাবে তাই বিলগ্নিকরণেই আস্থা ছিল কেন্দ্রের। কেন্দ্রীয় সরকার গত সপ্তাহের শুরুতে এয়ার ইন্ডিয়ার দরপত্র মূল্যায়ন শুরু করে।

হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, ১৯৩২ সালে ভারত স্বাধীন হওয়ার আগে টাটা গোষ্ঠী এয়ার ইন্ডিয়াকে কিনে নেয়। তখন তার নাম ছিল টাটা এয়ারলাইন্স। এরপর ১৯৫৩ সালে এয়ার ইন্ডিয়া রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা হয়। ৬৭ বছর পর ফের তা টাটাদের হাতেই ফিরে এল। ঋণগ্রস্ত এয়ার ইন্ডিয়ার মোট ১২৭টি উড়োজাহাজ রয়েছে। এয়ার ইন্ডিয়া বর্তমানে ৪২ টি আন্তর্জাতিক গন্তব্যে যায়। দেশে মোট ৪,৪০০টি অভ্যন্তরীণ এবং ১,৮০০টি আন্তর্জাতিক অবতরণ এবং পার্কিং স্লটের পাশাপাশি বিদেশি বিমানবন্দরে ৯০০ স্লটের নিয়ন্ত্রণ পাবে টাটা গোষ্ঠী। এয়ার ইন্ডিয়ার কর্মীদের চাকরি একবছরের জন্য সুনিশ্চিত। তারপর যাদের যাদের রাখবে না টাটা গোষ্ঠী, তাদের ভলান্টারি রিটায়ারমেন্টের সুযোগ দেওয়া হবে। এছাড়াও সবাই পিএফ, গ্র্যাচুইটি ও মেডিকেলের সুযোগ পাবেন।


হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে আরও বলা হয়, ভারত সরকার এয়ার ইন্ডিয়ায় তার সম্পূর্ণ অংশীদারিত্ব বিক্রি করছে। ভারতের বেসামরিক বিমান পরিষেবা ক্ষেত্রে টাটা গ্রুপ নতুন নয়। এয়ারএশিয়া ইন্ডিয়াতে প্রায় ৮৪% এবং ভিস্তারায় ৫১% শেয়ার আছে টাটা গ্রুপের। ফলে এয়ার ইন্ডিয়া যে বেশ অভিজ্ঞ হাতেই যাচ্ছে, তা বলা যায়।

বিলগ্নিকরণ দফতরের সচিব বলেন, হস্তান্তরের পর মোট ৪৬ হাজার ২৬২ কোটি টাকার ঋণ থাকবে এয়ার ইন্ডিয়ার। এই ঋণ এআইএএইচএল (Air India Assets Holding Limited (AIAHL) -এর নামে হবে। চলতি বছর আগস্টের শেষে মোট ঋণ ছিল ৬৫ হাজার ৫৬২ কোটি টাকা।


Facebook Comments Box

Comments

comments

advertisement

Posted ৮:০৮ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ০৮ অক্টোবর ২০২১

সংবাদমেইল |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো. মানজুরুল হক

নির্বাহী সম্পাদক: মো. নাজমুল ইসলাম

বার্তা সম্পাদক : শরিফ আহমেদ

কার্যালয়
উপজেলা রোড, কুলাউড়া, মেলভীবাজার।
মোবাইল: ০১৭১৩৮০৫৭১৯
ই-মেইল: sangbadmail2021@gmail.com

sangbadmail@2016 কপিরাইটের সকল স্বত্ব সংরক্ষিত