বৃহস্পতিবার ১ ডিসেম্বর, ২০২২ | ১৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯

সিলেটে বিএনপির গণসমাবেশের মঞ্চের পাশে সাইফুর-ইলিয়াসের ছবি, নেতাকর্মীরা খুশি

সিলেট প্রতিনিধি:: | শনিবার, ১৯ নভেম্বর ২০২২ | প্রিন্ট  

সিলেটে বিএনপির গণসমাবেশের মঞ্চের পাশে সাইফুর-ইলিয়াসের ছবি, নেতাকর্মীরা খুশি

সিলেটে বিএনপির গণসমাবেশের মঞ্চের পাশেই বাঁশ দিয়ে অস্থায়ীভাবে সাঁটানো হয়েছে বিএনপির প্রয়াত নেতা এম সাইফুর রহমান ও ‘নিখোঁজ’ নেতা এম ইলিয়াস আলীর ছবি।

শুক্রবার দিবাগত রাত ২টার দিকে সিলেট সরকারি আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে বিএনপির সমাবেশস্থলে সাঁটানো হয়।


তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা বলেন, সিলেটে বিএনপির রাজনীতিতে ‘তারকা’ হিসেবে খ্যাত এ দুই নেতাকে এভাবে গণসমাবেশে স্মরণ করার বিষয়টি প্রশংসনীয়। বিএনপি যে তাদের মতো নেতার অবদান ভুলে যায়নি, এটা তারই প্রমাণ।

বিএনপির নেতা-কর্মীরা বলেন, একটা সময় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমান ছিলেন সিলেট বিএনপির একক নেতা। এর পর বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এম ইলিয়াস আলীর উত্থান হলে দুই ধারায় সক্রিয় ছিল সিলেট বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনগুলো।


সাইফুর রহমানের মৃত্যু ও ইলিয়াস আলী ‘নিখোঁজ’ হওয়ার পর দল আর ঐক্যবদ্ধ হয়নি। উল্টো বিভক্তি বেড়েছে, বলয়ের ভেতরে তৈরি হয়েছে উপবলয়। এ অবস্থায় এই দুই নেতার ছবি সাঁটানোর বিষয়টি ঐক্য আর বন্ধনের বিষয়টিই সুসংহত করেছে।

এ বিষয়ে সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আবদুল কাইয়ুম চৌধুরী বলেন, সাইফুর রহমান ও ইলিয়াস আলীর অবদান সিলেটের বিএনপি কখনো ভুলতে পারবে না। তাদের মতো মহান দুই নেতা এই অঞ্চলে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনগুলোর বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। তাদের জীবন ও আদর্শ তরুণ প্রজন্মের জাতীয়তাবাদী চেতনা লালনকারীদের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে এবং দুই মহান নেতাকে স্মরণে রাখতেই ছবি সাঁটানো হয়েছে।


সিলেট বিএনপির বেশ কয়েক জন নেতা বলেন, সাইফুর রহমান ২০০৯ সালের ৫ সেপ্টেম্বর একটি সড়ক দুর্ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মারা যান।

অন্যদিকে ইলিয়াস আলী ২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল ঢাকার বনানী থেকে ‘নিখোঁজ’ হন। এর পর থেকে সিলেট বিএনপির বিভিন্ন কর্মসূচিতে এ দুই নেতা সশরীর না থেকে সব সময় দৃশ্যমান থাকেন। অনেক নেতা-কর্মী তাদের পোস্টার, ফেস্টুনে এ দুই নেতার ছবি যুক্ত করে প্রচার-প্রচারণা চালান।

বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, ‘সাইফুর রহমানের অত্যন্ত স্নেহভাজন ছিলাম আমি। বিএনপির রাজনীতিতে যুক্ত থাকলেও দলমত–নির্বিশেষে তিনি উন্নয়ন করেছেন। অন্যদিকে ইলিয়াস আলীও সিলেট বিএনপির একজন তারকা নেতা। দুই নেতার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বিলবোর্ড, ফেস্টুনসহ আমার যাবতীয় প্রচারণায় তাদের ছবি ঠাঁই দিয়েছি।’

Facebook Comments Box

Comments

comments

advertisement

Posted ৬:৩৩ অপরাহ্ণ | শনিবার, ১৯ নভেম্বর ২০২২

সংবাদমেইল |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো. মানজুরুল হক

নির্বাহী সম্পাদক: মো. নাজমুল ইসলাম

বার্তা সম্পাদক : শরিফ আহমেদ

কার্যালয়
উপজেলা রোড, কুলাউড়া, মেলভীবাজার।
মোবাইল: ০১৭১৩৮০৫৭১৯
ই-মেইল: sangbadmail2021@gmail.com

sangbadmail@2016 কপিরাইটের সকল স্বত্ব সংরক্ষিত