শুক্রবার ২১ জানুয়ারি, ২০২২ | ৭ মাঘ, ১৪২৮

ময়না বিবি আর কতোদিন কাপড় দিয়ে মূখ ঢেকে থাকবে?

আহমদউর রহমান ইমরান, রাজনগর (মৌলভীবাজার) থেকে: | সোমবার, ১৬ জুলাই ২০১৮ | প্রিন্ট  

ময়না বিবি আর কতোদিন কাপড় দিয়ে মূখ ঢেকে থাকবে?

ময়না বিবি, বয়স প্রায় ৬৭ বছর। কোনো ছেলে-মেয়ে নেই তার। স্বামী ইয়াকুব আলী মারা গেছেন প্রায় ৩০ বছর পূর্বে। বর্তমানে কঠিন রোগে আক্রান্ত তিনি। মুখের অনেক অংশ পচে গেচে। ডাক্তার বলেছে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন অনেক টাকা । অন্যের জায়গায় ছোট্ট একখান ঘরে বসবাস করেন ময়না বিবি। সম্প্রতি বন্যায় তার ঘর ভেঙ্গে গেছে । মানুষের সাহায্যে দিন পাত কাটছে তার। ময়না বিবির বাড়ি মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার কামারচাক ইউনিয়নের ভুলানগর গ্রামে।

সম্প্রতি বন্যা কবলিত থাকাকালিন সময়ে ত্রাণ বিতরণ করতে গিয়ে তার দেখা পায় হৃদয়ে রাজনগর সামাজিক সংস্থার কামারচাক প্রতিনিধি আলীম আল মুনিম। তার সহযোগীতায় আমাদের প্রতিবেদক ময়না বিবির সাথে দেখা করেন। তার সাথে আলাপনে ময়না বিবি তার জীবন সংগ্রামের অনেক কথা বলেন। বিয়ে কবে হয়েছিন তার মনে নেই কিন্তু অনেক বছর হবে তা বলতে পারছেন। বিয়ের পর থেকে স্বামীর সাথে সংসার করেছেন ভাল ভাবে। কিন্তু তার কোলে কোনো সন্তান হয়নি। তার পর স্বামীও মারা গেলেন। শুরু হয় জীবনের আরেকটি অধ্যায়। মানুষের ধারে ধারে গিয়ে সাহয্যের হাত বাড়াতে হয় তার। গত কয়েক মাস থেকে মুখ মন্ডলে পচন ধরে বর্তমানে পুরো মুখ মন্ডল পচে গেছে। টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছে না বলে জানান তিনি।


ময়না বিবি বলেন, আমার কেউ নাই, সায় সাইয্য (সাহায্য) লইয়া চলি। টেকার (টাকার) অভাবে ডাক্তার দেখাইতে পাররাম না। আমার স্বামী সন্তান কেহ নাই। বড় কষ্ট করি বাচরাম। আমার মুখ অন্যরা দেখলে ভয় পায়। আমি কাপর দিয়ে মুখ ডেকে রাখি। আমি সমাজের বিত্তবানদের কাছে সাহায্য চাই। জীবনে যে কয়দিন বাঁচবো সুস্থ অবস্থায় বাঁচতে চাই। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ময়না বিবি বড় কষ্ট করে দিন পাত কাটছেন। ছেলে-মেয়ে কেহ না থাকায় তার এ দূর্গতি। বন্যার পর উপজেলার মনসুরনগর ইউনিয়নে ঢাকা থেকে একটি মেডিকেল টিম এসেছিল সে খানে তাকে চিকিৎসা দেয়া হয়। সেই সময় ডাক্তার পরামর্শ দেন তাকে উন্নত চিকিৎসা দিতে হবে। তার মুখের অংশ ভাল ভাবে পরিক্ষা করতে হবে। এই রোগ সারবে কিছু সময় লাগবে । কিন্তু আশার আলো দেখেও অর্থের কাছে নিরুপায় ময়না বিবি।

আলীম আল মুনিম বলেন, বন্যার সময় সামাজিক সংগঠনের ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে ময়না বিবির গ্রামে (ভুলানগর) গিয়েছিলাম। সেখানে দেখা হয় ময়না বিবির সাথে। তার এই অবস্থা দেখে বড় কষ্ট হয় । কিন্তু কি করা একা আমার পক্ষে কিছু করার নেই তাই আমি সবার সাথে ময়না বিবির রোগের কথা শেয়ার করি। সম্প্রতি বন্যার কারনে আমাদের উপজেলা সহ কামাচাক ইউনিয়ন অনেক ক্ষতিগ্রস্থ । সমাজের বিত্তবানদের সহযোগীতা প্রয়োজন ময়না বিবির জন্য।


Facebook Comments Box


Comments

comments

advertisement

Posted ৭:৪৭ অপরাহ্ণ | সোমবার, ১৬ জুলাই ২০১৮

সংবাদমেইল |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো. মানজুরুল হক

নির্বাহী সম্পাদক: মো. নাজমুল ইসলাম

বার্তা সম্পাদক : শরিফ আহমেদ

কার্যালয়
উপজেলা রোড, কুলাউড়া, মেলভীবাজার।
মোবাইল: ০১৭১৩৮০৫৭১৯
ই-মেইল: sangbadmail2021@gmail.com

sangbadmail@2016 কপিরাইটের সকল স্বত্ব সংরক্ষিত