বুধবার ২৭ অক্টোবর, ২০২১ | ১১ কার্তিক, ১৪২৮

মালয়েশিয়ায় আবেদনকারীরা কোম্পানির অফিসেই করতে পারবেন ফিঙ্গার প্রিন্ট

মালয়েশিয়া সংবাদদাতা: | শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | প্রিন্ট  

মালয়েশিয়ায় আবেদনকারীরা কোম্পানির অফিসেই করতে পারবেন ফিঙ্গার প্রিন্ট

মালয়েশিয়ায় অবৈধদের বৈধতার রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রামে আবেদনকারীরা এখন থেকে কোম্পানির অফিসেই করতে পারবেন ফিঙ্গার প্রিন্ট।

দেশটির ইমিগ্রেশন ডিপার্টমেন্ট (জেআইএম) চলমান রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রাম (আরটিকে) বাস্তবায়ন প্রক্রিয়াকে দ্রুততর সহায়তার ‘আউটরিচ’ করতে সক্রিয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।


আরটিকের (জঞক) নিবন্ধিত এসএনসিয়াল (ঊঝঝঊঘঞওঅখ) যাচাইকরণ প্রক্রিয়াকে গতিশীল করতে জেআইএম নিয়োগকর্তার ক্ষেত্র/প্রাঙ্গণে ‘আউটরিচ’ বায়োমেট্রিক গ্রহণ প্রয়োগ করে। এই প্রোঅ্যাক্টিভ স্টেপ নিয়োগকর্তার মাধ্যমে যারা বেশি পরিমাণে কর্মী নথিভুক্ত করেছেন তাদের প্রয়োজনীয় যাচাইকরণ প্রক্রিয়ার জন্য জেআইএমের অফিসে যেতে হবে না।

এই ‘আউটরিচ’ এক্সিকিউশন সময় বাঁচাতে পারে এবং ক্ষেত্রটিতে বায়োমেট্রিক গ্রহণের পরে নিয়োগকর্তাদের চলাচল এবং এসেন্স হ্রাস করতে পারে, এমনটি জানানো হয়েছে অভিবাসন বিভাগ থেকে।


গত বছরের নভেম্বরে শুরু হওয়া শ্রম পুনরুদ্ধার রিক্যালিব্রেশন কর্মসূচির মেয়াদ ছিল জুন মাসের ৩০ তারিখ পর্যন্ত। এ সময় বাড়িয়ে চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত করা হয়েছে।

রিক্যালিব্রেশনের আওতায় পুনরুদ্ধার কর্মসূচি শুরুর পর থেকে ২৭ আগস্ট পর্যন্ত ১ লাখ ৭৪ হাজার ৬৮ জন অভিবাসী নিবন্ধিত হয়েছেন। বৈধ হতে নির্দিষ্ট শর্ত আরোপ করে কিছু যোগ্যতা চেয়েছিল দেশটির সংশ্লিষ্ট বিভাগ; যারা বৈধভাবে মালয়েশিয়ায় এসে ভিসায় উল্লেখিত নিয়োগকর্তার অধীনে কাজ করছেন কিন্তু ভিসা রিনিউ করেননি বা ওভার স্টে হয়েছে, যারা নিজ কোম্পানিতে কাজ করেননি এবং যারা নিয়োগ পাওয়া প্রতিষ্ঠান থেকে পালিয়ে গেছেন তারা এই প্রক্রিয়ায় বৈধ হতে পারবেন। তবে ২০২০ সালের ৩১ ডিসেম্বরের আগে যারা এমন অনিয়ম করেছেন তারাই এ সুযোগ পাবেন। এর পরবর্তী সময়ে কেউ এসব অপরাধ করলে তারা এ প্রক্রিয়ায় অন্তর্ভুক্তির সুযোগ পাবেন না।


২০১৬ সালে ঘোষিত ‘রি-হায়ারিং’ বৈধকরণ কর্মসূচির সঙ্গে চলমান এই রিক্যালিব্রেশনের কিছুটা পার্থক্য রয়েছে। বিষয়টি বুঝতে না পারলে রয়েছে প্রতারিত হওয়ার ঝুঁকি। যেমন- রি-হায়ারিংয়ে নৌ, সাগর বা স্থলপথে অবৈধভাবে যারা অনুপ্রবেশ করেছিল তাদেরও বৈধতা দিয়েছিল দেশটি। এ কর্মসূচিতে সেই সুযোগ নেই।

এদিকে চলমান করোনা মহামারির কারণে কোনো দেশেই নতুন করে বিদেশি শ্রমিক নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে না। সরকারগুলো এখন নাগরিকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে। পাশাপাশি দেশে থাকা বিদেশিদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার আওতায় আনারও কৌশল নিয়েছে মালয়েশিয়া।#

Facebook Comments Box

Comments

comments

advertisement

Posted ১২:২৩ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

সংবাদমেইল |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো. মানজুরুল হক

নির্বাহী সম্পাদক: মো. নাজমুল ইসলাম

বার্তা সম্পাদক : শরিফ আহমেদ

কার্যালয়
উপজেলা রোড, কুলাউড়া, মেলভীবাজার।
মোবাইল: ০১৭১৩৮০৫৭১৯
ই-মেইল: sangbadmail2021@gmail.com

sangbadmail@2016 কপিরাইটের সকল স্বত্ব সংরক্ষিত