সোমবার ২৯ নভেম্বর, ২০২১ | ১৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮

বড়লেখায় আগর কারখানার বিরুদ্ধে পরিবেশ দূষণের অভিযোগ

বড়লেখা প্রতিনিধি,সংবাদমেইল২৪.কম | শনিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০১৭ | প্রিন্ট  

বড়লেখায়  আগর কারখানার বিরুদ্ধে পরিবেশ দূষণের অভিযোগ

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় জনবসতিপূর্ণ ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কোলঘেঁষে গড়ে উঠা একটি আগর কারখানার বিরুদ্ধে পরিবেশ দূষণসহ নানা অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার রতুলীবাজার এলাকায় গড়ে উঠা কারখানাটির দূষণ থেকে প্রতিকার চেয়ে নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন এলাকাবাসী।

অভিযোগ ও সরেজমিনে জানা গেছে, উপজেলার দক্ষিণভাগ দক্ষিণ ইউনিয়নের রতুলীবাজার এলাকায় সুজানগর ইউনিয়নের বড়থল গ্রামের হবিব আলী ৬/৭ মাস পূর্বে আগর কাঠের ভূষি প্রক্রিয়াজাতকরণের কারখানা গড়ে তুলেন। কারখানাটি পাথারিয়া গাংকুল ফাজিল ডিগ্রি মাদ্রাসা, গাংকুল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও একটি কিন্টার গার্টেন সংলগ্ন হওয়ায় শিক্ষার্থীদের পাঠদানসহ প্রতিষ্ঠানগুলোর সার্বিক কার্যক্রম বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। এছাড়া কারখানার মিশিনের শব্দের কারণে রাতের বেলায় মাদ্রাসার ছাত্রবাসের শিক্ষার্থী ও আশপাশের গ্রামের মানুষও মারাত্মক শব্দ দূষণের শিকার হচ্ছেন। পরিবেশ ও শব্দ দূষণের প্রতিকার চেয়ে সম্প্রতি এলাকার ২৩৮ জন ভুক্তভোগির স্বাক্ষর সম্বলিত লিখিত অভিযোগ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম আব্দুল্লাহ আল মামুনের কাছে দিয়েছেন।


অভিযোগকারী পাথারিয়া গাংকুল ফাজিল ডিগ্রি মাদ্রাসার অধ্যক্ষ এফএইচএম ইউসুফ আলী জানান, ‘কারখানার মিশিনের শব্দে ছাত্রবাসের শিক্ষার্থীদের পড়তে ও রাতে ঘুমাতে সমস্যা হয়। এছাড়া মাদ্রাসার অফিসের স্বাভাবিক কার্যক্রমও বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। বিষয়টি আমরা কারখানার মালিককে আগে জানিয়েছি। তিনি তাতে কোন সাড়া দেননি। তাছাড়া আগর কাঠের ভূষি প্রক্রিয়াজাতকরণের সময় মাদ্রসার পুকুরে পড়ে পানি দূষণসহ মাছও মারা পড়ছে।

রতুলী বাজার বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ছায়দুল হক, ব্যবসায়ী আজিজুর রহমান, ফয়জুর রহমান, গাংকুল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল আলিম, সেলিম মোহাম্মদ, সাহিদুর রহমান প্রমুখ জানান, কারখানার যন্ত্রের উচ্চ শব্দ ও বায়ূ দূষণের কারণে শিক্ষার্থী ও আশপাশের গ্রামের মানুষের স্বাভাবিক জনজীবনে বিরুপ প্রভাব পড়ছে।


এ ব্যাপারে কারখানার মালিক হবিব আলী বলেন, ‘আমার ব্যবসায়ীক প্রতিপক্ষরাই এসব অভিযোগ করাচ্ছেন। তবে কারখানার দ্বারা পরিবেশ দূষণের ঘটনা তদন্তে উঠে আসলে তিনি তা সরিয়ে নিবেন বলে জানান।’

অভিযোগ প্রাপ্তির সত্যতা নিশ্চিত করে বড়লেখা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘অভিযোগ তদন্তের জন্য একজন কর্মকর্তা নিয়োগ দেয়া হয়েছে। তদন্ত কর্মকর্তার প্রতিবেদন প্রাপ্তি সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’


সংবাদমেইল২৪.কম/এজে লাভলু/এনএস

Facebook Comments Box

Comments

comments

advertisement

Posted ১১:১৬ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০১৭

সংবাদমেইল |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো. মানজুরুল হক

নির্বাহী সম্পাদক: মো. নাজমুল ইসলাম

বার্তা সম্পাদক : শরিফ আহমেদ

কার্যালয়
উপজেলা রোড, কুলাউড়া, মেলভীবাজার।
মোবাইল: ০১৭১৩৮০৫৭১৯
ই-মেইল: sangbadmail2021@gmail.com

sangbadmail@2016 কপিরাইটের সকল স্বত্ব সংরক্ষিত