রবিবার ৫ ডিসেম্বর, ২০২১ | ২০ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮

নাগরিক সুবিধা সম্পন্ন নান্দনিক পর্যটন শহর গড়ে তুলবো শ্রীমঙ্গলকে: মনসুরুল হক

শ্রীমঙ্গল সংবাদদাতা :: | সোমবার, ০১ নভেম্বর ২০২১ | প্রিন্ট  

নাগরিক সুবিধা সম্পন্ন নান্দনিক পর্যটন শহর গড়ে তুলবো শ্রীমঙ্গলকে: মনসুরুল হক

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হিসেবে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী অধ্যক্ষ সৈয়দ মনসুরুল হক।

শনিবার (৩০ অক্টোবর) রাতে শহরের শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রেসক্লাবের হল রুমে এ মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজার জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিসবাহুর রহমান, কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাধাপদ দেব, কমলগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসএসএম আজাদুর রহমান প্রমুখ।


মতবিনিময়কালে মনসুরুল হক বলেন, একটি নান্দনিক শ্রীমঙ্গল শহর গড়তে আসন্ন শ্রীমঙ্গল পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন তিনি। পেয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মৌলভীবাজার জেলার সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি শ্রীমঙ্গল দ্বারিকা পাল মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ। একটি নাগরিক সুবিধা সম্পন্ন পৌরসভা গড়তে পৌরসভার মেয়র হতে চান তিনি।

সৈয়দ মনসুরুল হক বলেন, আমি ছাত্রজীবন থেকে শুরু করে দীর্ঘ ৩৫ বছর ধরে আমি জনগণের আশা-আকাঙ্ক্ষা ধারণ করে রাজনৈতিক, সামাজিক, ধর্মীয়, সাংস্কৃতিক, খেলাধুলা, শিক্ষাসহ সকল কর্মকাণ্ডে আছি। আমি একটি কলেজের অধ্যক্ষ। আমাদের শ্রীমঙ্গল একটি পর্যটন নগরী। দেশ বিদেশ থেকে এখানে পর্যটকরা আসেন। আমাদের শহরের যত্রতত্র ময়লা আবর্জনা পরে থাকে। রাতের বেলা সড়কবাতির বেশীরভাগই জ্বলে না, শহরে অবৈধভাবে চলা যানবাহনের কারণে যানজট লেগেই রয়েছে। নাগরিক সেবায় পৌরসভার জনপ্রতিনিধিদের কাছ থেকে যতটুকু সেবা পাওয়ার কথা তার অনেক কম সেবা পান জনগণ। আমার কাছে প্রায়ই লোকজন আসেন তাদের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে। তারা মেয়র সাহেবের কাছে যেতে পারেন না। সাধারণ জনগণের সাথে মেয়রের দূরত্ব অনেক। আমাদের এই পৌরসভার অনেক ভোটার রয়েছেন যারা শ্রীমঙ্গল শহরের বাহিরে থাকেন। ভোটের সময় এসে তারা ভোট দিয়ে চলে যান। জনপ্রতিনিধিরা তাদেরকে সব বরাদ্দ দিয়ে দেন। আমার পৌরসভার অসহায় মানুষরা সরকারের বিভিন্ন প্রণোদনা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। একটি প্রথম শ্রেণীর পৌরসভা হিসেবে এই শহরে পৌরসভার অনেক কিছুই করা যেত। নির্বাচনকে সামনে রেখে হঠাৎ করেই গত দশ বছরের কাজ একসাথে করা শুরু হয়ে গেছে। কিন্তু এতদিন জনপ্রতিনিধিরা কি করলো বুঝলাম না?


দীর্ঘদিন যাবৎ নির্বাচন বিহীন শ্রীমঙ্গল পৌরসভার জনগণ প্রকৃত নাগরিক সেবা থেকে বঞ্চিত। জনপ্রতিনিধিরা মনে করেছিলেন মামলা দিয়ে পৌরসভার নির্বাচন আটকে রাখবেন। সে জন্য তারা পৌরবাসীর কোন কথাই পাত্তা দেন নি। আমি চাই আমার পৌরসভার আর কোন জনগণ সেবা পাওয়ার জন্য জনপ্রতিনিধিদের দাড়ে দাড়ে ঘুরবে না। আমি মেয়র হলে পৌরসভার সব কাজে আধুনিকতা নিয়ে আসবো। পৌরবাসী বাসায় বসেই নাগরিক সেবা পাবেন। আমাকে শ্রীমঙ্গলবাসী সব সময় কাছে পেয়েছেন। জনগণের পাশে থেকে উন্নয়নে আমি কাজ করবো। আমি মেয়র নির্বাচিত হলে পৌরবাসীকে সাথে নিয়ে একটি নান্দনিক পর্যটন শহর হিসেবে শ্রীমঙ্গলকে গড়ে তুলবো।

উল্লেখ্য, শ্রীমঙ্গল পৌরসভা নির্বাচন আগামী ২৮ নভেম্বর। গত দশ বছর আগে এই পৌরসভায় নির্বাচন হয়েছিল। এর পর মেয়াদ শেষ হলেও সীমানা জটিলতাসহ বিভিন্ন কৌশলী মামলায় আটকে ছিল পৌরসভার নির্বাচন। নির্বাচন বিহীন অতিক্রান্ত হয়েছে ৫টি বছর।


 

Facebook Comments Box

Comments

comments

advertisement

Posted ১:৫৬ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, ০১ নভেম্বর ২০২১

সংবাদমেইল |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো. মানজুরুল হক

নির্বাহী সম্পাদক: মো. নাজমুল ইসলাম

বার্তা সম্পাদক : শরিফ আহমেদ

কার্যালয়
উপজেলা রোড, কুলাউড়া, মেলভীবাজার।
মোবাইল: ০১৭১৩৮০৫৭১৯
ই-মেইল: sangbadmail2021@gmail.com

sangbadmail@2016 কপিরাইটের সকল স্বত্ব সংরক্ষিত