শুক্রবার ৩ ডিসেম্বর, ২০২১ | ১৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮

দেশের মানুষ শাসক দলের ওপর অতিষ্ঠ হয়ে গেছে: মির্জা ফখরুল

অনলাইন ডেস্ক : | মঙ্গলবার, ০৫ অক্টোবর ২০২১ | প্রিন্ট  

দেশের মানুষ শাসক দলের ওপর অতিষ্ঠ হয়ে গেছে: মির্জা ফখরুল

ফাইল ছবি

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আওয়ামী লীগের হাত থেকে বাঁচার জন্য জনগণ বিএনপিকে ভোট দেবে। দেশের মানুষ শাসক দলের ওপর অতিষ্ঠ হয়ে গেছে। তাই তারা বিএনপিকে ভোট দেবে।


মঙ্গলবার রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপার্সনের কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৬তম অধিবেশনে অংশগ্রহণ ও সফর শেষে সোমবার প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলনে দেওয়া বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানাতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আওয়ামী লীগ দেশের যে অবস্থা তৈরি করেছে তাতে মানুষের জীবনে কোনো নিরাপত্তা নেই। জীবিকারও কোনো নিরাপত্তা নেই। চারদিকে ভয় ও ত্রাস। মানুষ অতিষ্ঠ। তাই তাদের হাত থেকে বাঁচার জন্য জনগণ বিএনপিকে ভোট দেবে।


তিনি বলেন, ১০ টাকা কেজির চাল খাওয়াবেন বলে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেছিলো। এখন ৭০ টাকা কেজির চাল। ফলে মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে গেছে। তারা বিনা পয়সায় সার দেবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। তা দেননি। এ কারণে মানুষ এখন আওয়ামী লীগের হাত থেকে মুক্তি চায়, শেখ হাসিনার হাত থেকে মুক্তি চায়, এই অবৈধ সরকারের হাত থেকে মুক্তি চায়। মানুষ কর্মসংস্থানের নিশ্চয়তার জন্য বিএনপিকে ভোট দেবে। মানুষ নিজের ভোট নিজে দিতে চায় এবং যাকে খুশি তাকে দিতে চায়, সেজন্য বিএনপিকে ভোট দেবে।

ফখরুল বলেন, সরকার বলছে- অনেক উন্নয়ন করেছে। যদি এত উন্নয়ন করে থাকে তাহলে তারা একটা সুষ্ঠু নির্বাচন দেন না কেন? একটা তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন করেন দেখেন। দেখুন- মানুষ কাকে ভোট দেয়।


নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে তিনি বলেন, সাবেক নির্বাচন কমিশনররা বলেছেন যে- একটা সুষ্ঠু অবাধ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হতে হলে একটা নিরপেক্ষ সরকার থাকাটা সবচেয়ে জরুরি। আসলে ওটাই হচ্ছে প্রথম সংকট। নির্বাচন কমিশন খুব ভালো করলেন। কিন্তু তারা কাজ করতে পারলো না। সরকার তাদের সাথে সহযোগিতা করলো না বা তাদেরকে কাজ করতে দিলো না। তখন তো নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না। এর আগেও সার্চ কমিটি দিয়ে কমিশন গঠন করা হয়েছে। সার্চ কমিটির নামে নিজস্ব লোক দিয়ে কমিশন গঠন করা হয়। সার্চ কমিটি একটি ধোঁকা।

সংবিধানে তত্ত্বাবধায়ক সরকার নেই- সরকারের এরকম বক্তব্য খণ্ডন করে তিনি বলেন, সংবিধান কী একটা পবিত্র ধর্মী গ্রন্থ যে এটা পরিবর্তন করা যাবে না। জনগণের প্রয়োজনে সংবিধান পরিবর্তন করতে হবে। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগ আর ক্ষমতায় আসতে পারবে না বলে দলীয় সরকারের অধীনেই নির্বাচনের বিধান রাখতে চায়।

মির্জা ফখরুল বলেন, এদেশের মানুষ আন্দোলন করবেই। আন্দোলন হবেই। কারণ দাবি আদায়ের জন্য আন্দোলন হবে, এদেশের জনগণ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের জন্য আগে আন্দোলন করেছে, এবারো করবে। আমাদের দাবি একটাই। আমরা শুধুমাত্র নির্বাচনকালীন সময়ে একটা নিরপেক্ষ সরকার চাই।

খালেদা জিয়া নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না এরকম প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, খালেদা জিয়া নির্বাচনে অংশ নিতে না পারলে নেতা থাকতে পারবেন না-এটা মনে করার কোনো কারণ নাই। শেখ মুজিবুর রহমানের বিরুদ্ধে মামলা ছিলো তিনি কারাগারে ছিলেন। তিনি কি নেতা ছিলেন না?

জিয়াউর রহমানের শাসনামলের সশ্বস্ত্র বাহিনীর ভেতরের ঘটনা ক্যু-পাল্টা ক্যুতে বিভিন্ন মানুষজনকে ফাঁসি দেয়ায় জিয়াউর রহমানের বিচার হওয়া উচিত বলে প্রধানমন্ত্রীর যে বক্তব্য রেখেছেন তার প্রতিক্রিয়ায় মির্জা ফখরুল বলেন, ১৯৭২-৭৫ সাল পর্যন্ত সিরাজ শিকদার থেকে শুরু করে ৩০ হাজার নেতা-কর্মী যতগুলো হত্যাকাণ্ড হয়েছে তাদের আত্বীয়স্বজনরা আহাজারি করছেন। আর জিয়াউর রহমানের সময়ে সামরিক অভ্যুত্থান-পাল্টা অভ্যুত্থানে জড়িতদের সামরিক আইনে মার্শাল কোর্টে তাদের বিচার হয়েছিলো। এখানে জিয়াউর রহমানের ভূমিকা ছিলো না।

অতীতের মতো নির্বাচন জনগণ আর মানবে না জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন হবে না। ২০১৪ অথবা ২০১৮ সালের নির্বাচন নির্বাচন খেলায় জনগণ আর গ্রহণ করবে না। এখন আবার শুনতে পারছি যে, এবার ১৫০টি আসনে ইভিএম ব্যবহার করা হবে। এটা হলে তো হয়েই গেলো, আর নির্বাচন তো দরকার নেই। ইভিএম দিয়েই তো তারা নিয়ে চলে যাবেন।

এদিকে এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, বর্তমান কর্তৃত্ববাদী আওয়ামী লীগ সরকার এখন জনবিস্ম্ফোরণের ভয়ে ভীত। তাই সরকার নানাভাবে বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের হয়রানি করেছে। সোমবার রাতে ঢাকা মহানগর পূর্ব ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রবিউল ইসলাম নয়নের বাড়িতে গ্রেপ্তার অভিযান চালিয়ে ছাত্রদল নেতাকে না পেয়ে তার বৃদ্ধ বাবা ও দুই চাচাকে গ্রেপ্তার করার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে তিনি এ বিবৃতি দেন। সূত্র: সমকাল

Facebook Comments Box

Comments

comments

advertisement

Posted ১১:১৬ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ০৫ অক্টোবর ২০২১

সংবাদমেইল |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো. মানজুরুল হক

নির্বাহী সম্পাদক: মো. নাজমুল ইসলাম

বার্তা সম্পাদক : শরিফ আহমেদ

কার্যালয়
উপজেলা রোড, কুলাউড়া, মেলভীবাজার।
মোবাইল: ০১৭১৩৮০৫৭১৯
ই-মেইল: sangbadmail2021@gmail.com

sangbadmail@2016 কপিরাইটের সকল স্বত্ব সংরক্ষিত