বুধবার ৮ ডিসেম্বর, ২০২১ | ২৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮

জয়রথ ছুটছেই পাকিস্তানের

স্পোর্টস ডেস্ক : | শনিবার, ৩০ অক্টোবর ২০২১ | প্রিন্ট  

জয়রথ ছুটছেই পাকিস্তানের

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জয়রথ ছুটছে পাকিস্তানের। আগের দুই ম্যাচে গ্রুপের শক্তিশালী দুই প্রতিপক্ষ ভারত ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জয় পেয়েছিল তারা। এবার আফগানিস্তানকে বধ করেছে। এজন্য অবশ্য বেশ কষ্ট পোহাতে হয়েছে। অবশ্য আসিফ আলির বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে পাকিস্তান জয় নিশ্চিত করে ৫ উইকেটে। প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে ১৩ রানে নেই ২টি। ৭৬ রান তুলতে নেই ৬ টি। পাকিস্তানের বোলারদের তোপে এভাবেই কোণঠাসা হয়ে পড়েছিল আফগানিস্তান।

ধারণা করা হচ্ছিল, একশ রানই করতে পারবে না আফগানরা। কিন্তু সামনে থেকে ঠিকই নেতৃত্ব দিলেন অধিনায়ক মোহাম্মদ নবি। গুলবাদিন নাইবকে সঙ্গে নিয়ে করলেন ৪২ বলে ৬৯ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ে পাকিস্তানকে ১৪৮ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দিলেন। আর সেই লক্ষ্য পেরুতে শেষ দিকে প্রায় হোঁচট খেতে বসেছিল পাকিস্তান। তবে ১৯তম ওভারে করিম জান্নাতকে চারটি ছক্কা হাঁকিয়ে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন আসিফ আলি। দলটির পক্ষে সর্বোচ্চ ৫১ রান করেছেন অধিনায়ক বাবর আজম। তিনিই মূলত জয়ের ভিত গড়ে দিয়ে যান।


এছাড়া ফখর জামান ৩০, শোয়াইব মালিক ১৯ ও মোহাম্মদ হাফিজ করেন ১০ রান। শেষ দিকে প্রায় হারতে বসেছিল পাকিস্তান। ঠিক এমন সময়ে জ্বলে উঠে আসিফ আলির ব্যাট। ১৯তম ওভারে চারটি বিশাল ছক্কা হাকিয়ে দলের জয় নিশ্চিত করেন তিনি। মাত্র ৭ বলে ২৫ রান করেন এই ব্যাটার। যার ফলস্বরুপ ম্যাচ সেরার পুরস্কারও তার হাতে উঠেছে। শুক্রবার (২৯ অক্টোবর) দুবাই ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে প্রথমে টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন আফগান অধিনায়ক মোহাম্মদ নবি। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটের বিনিময়ে ১৪৭ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয় তারা। জবাবে এক ওভার এবং ৫ উইকেট হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় পাকিস্তান। সুপার টুয়েলভে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জয় পেলেও শুক্রবার দ্বিতীয় ম্যাচে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় আফগানরা। ৫ বলে শূন্য রানে আউট হন হজরতউল্লাহ জাজাই। ইমাদ ওয়াসিম তার উইকেটটি তুলে নেন। বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি মোহাম্মদ শাহজাদও। শাহীন শাহ আফ্রিদির বলে ৮ রানে সাজঘরে ফেরেন তিনি।

দলীয় ৩৩ রানে হ্যারিসের বলে তার হাতেই ফিরতি ক্যাচ দিয়ে বসেন আসগর আফগান। ১ চার ও ১টি ছক্কায় ৭ বলে ১০ রান করেন আসগর। দলীয় ৩৯ রানে রহমাতউল্লাহকে ফেরান হাসান আলি। ১টি ছক্কার সাহায্যে ৭ বলে ১০ রান করে বাবরের হাতে ধরা পড়েন তিনি। ১৭ বলে ১৫ রান করে মাঠ ছাড়েন করিম। ১৩তম ওভারে শাদব খান ফেরালেন নাজিবুল্লাহ জাদরানকে। ২১ বলে ২২ রান করে রিজওয়ানের তালুবন্দী হন নাজিব। শেষ পর্যন্ত নবী ও গুলবাদিনের ব্যাটে লড়াকু স্কোর পায় আফগানরা। নবী ও গুলবাদিন অপরাজিত থাকেন ৩৫ রানে। আফগানিস্তানের বিপক্ষে এই জয়ের মধ্য দিয়ে বাবর আজমরা নিজেদের হ্যাটট্রিক বিজয় নিশ্চিত করলেন। একইসাথে দলটির জন্য সেমি ফাইনালে খেলা অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে গেল।


Facebook Comments Box


Comments

comments

advertisement

Posted ১২:৫০ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ৩০ অক্টোবর ২০২১

সংবাদমেইল |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো. মানজুরুল হক

নির্বাহী সম্পাদক: মো. নাজমুল ইসলাম

বার্তা সম্পাদক : শরিফ আহমেদ

কার্যালয়
উপজেলা রোড, কুলাউড়া, মেলভীবাজার।
মোবাইল: ০১৭১৩৮০৫৭১৯
ই-মেইল: sangbadmail2021@gmail.com

sangbadmail@2016 কপিরাইটের সকল স্বত্ব সংরক্ষিত