বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারি, ২০২২ | ১৩ মাঘ, ১৪২৮

জুড়ীতে মাদ্রাসা কমিটির নির্বাচন ফের স্থগিত: ক্ষোভ উত্তেজনা

বিশেষ প্রতিনিধি,সংবাদমেইল২৪.কম | রবিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০১৭ | প্রিন্ট  

জুড়ীতে মাদ্রাসা কমিটির নির্বাচন ফের স্থগিত: ক্ষোভ উত্তেজনা

জেলার জুড়ীর নয়াগ্রাম শিমুলতলা দাখিল মাদরাসা কমিটির নির্বাচনের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হলেও অদৃশ্য কালো হাতের ইশারায় নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। ইতিপূর্বে আরো দুইবার নির্বাচন স্থগিত হয়। তফশীল অনুযায়ী ৩১ জানুয়ারী নির্বাচন অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি শেষে নির্বাচন বানচালের ঘটনায় বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত সদস্য ও সাধারণ অভিভাবক মহলে চরম ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে। অভিভাবক নন এমন ব্যক্তিকে কমিটিতে অর্ন্তভুক্ত করার হীন উদ্দেশ্যে নির্বাচন স্থগিত করা হয় বলে পরিচালনা কমিটির সাবেক সভাপতি হাবিুবর রহমান অভিযোগ করেছেন।

জানা গেছে, উপজেলার একমাত্র বিজ্ঞান বিভাগ চালু অন্যতম আধুনিক বিদ্যাপিঠ। মাদরাসার সর্বশেষ ম্যানেজিং কমিটির মেয়াদ ২০১৬ সালের ৩০ জুন শেষ হয়। মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে পুনরায় নির্বাচনের জন্য সকল প্রক্রিয়া শেষ করে জুড়ীর ইউএনও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুর রহমানকে প্রিসাইডিং অফিসার নিযুক্ত করেন। তিনি ৩০ মে নির্বাচনের তফশীল ঘোষণা করেন। তফশীল অনুযায়ী ১৫ জুন নির্বাচনের তারিখ চুড়ান্ত হয়। কিন্তু প্রভাবশালী মহলের অদৃশ্য হাতের কালো ইশারায় ২০ জুন প্রিসাইডিং অফিসার অব্যাহতি নিলে নির্বাচন স্থগিত হয়।


এরপর ০৫ সেপ্টেম্বর মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে সভাপতি করে ৪ সদস্যের এডহক কমিটি অনুমোদন করে। শিক্ষাবোর্ড সেই এডহক কমিটিকে ৬ মাসের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠানের নির্দেশ দেয়। নির্দেশনা মোতাবেক উপজেলা কৃষি অফিসার দেবল সরকারকে প্রিসাইডিং অফিসার নিযুক্ত করে গত ১০ জানুয়ারি পুনরায় নির্বাচনী তফশীল ঘোষিত হয়। ২০ জানুয়ারি মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ তারিখে ৩জন অভিভাবক সদস্য, ১জন প্রতিষ্ঠাতা, ১জন দাতা সদস্য, ২জন শিক্ষক প্রতিনিধি বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হন। প্রত্যাহারের দিন বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিতদের নাম ঘোষনার কথা থাকলেও রহস্যজনক কারণে প্রিসাইডিং অফিসার নির্বাচিতদের নাম ঘোষণা করেননি।

শুধুমাত্র এবতেদায়ী শাখায় ৩ প্রার্থীর ১জন অভিভাবক সদস্য মনোনয়ন প্রত্যাহার করায় নির্বাচনের জন্য বৈধ ২ প্রার্থী অবশিষ্ট থাকেন। ৩১ জানুয়ারী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও যুক্তিসঙ্গত কারণ ছাড়াই নির্বাচন স্থগিত করায় অভিভাবক মহলে ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজ করছে।


প্রিসাইডিং অফিসার ও উপজেরা কৃষি অফিসার দেবল সরকার জানান, ৩১ জানুয়ারী নির্বাচনের  লক্ষ্যে কার্যক্রম চালিয়ে গেলেও উর্ধ্বতন মহলের নির্দেশে নির্বাচনের সকল কর্মকান্ড স্থগিত রেখেছেন।

সংবাদমেইল২৪.কম/আব্দুর রব/এনএস


Facebook Comments Box

Comments

comments

advertisement

Posted ১০:২১ অপরাহ্ণ | রবিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০১৭

সংবাদমেইল |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো. মানজুরুল হক

নির্বাহী সম্পাদক: মো. নাজমুল ইসলাম

বার্তা সম্পাদক : শরিফ আহমেদ

কার্যালয়
উপজেলা রোড, কুলাউড়া, মেলভীবাজার।
মোবাইল: ০১৭১৩৮০৫৭১৯
ই-মেইল: sangbadmail2021@gmail.com

sangbadmail@2016 কপিরাইটের সকল স্বত্ব সংরক্ষিত