সোমবার ২৯ নভেম্বর, ২০২১ | ১৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮

কাঁচা মরিচ যে কারণে খাবেন?

অনলাইন ডেস্ক | বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর ২০২১ | প্রিন্ট  

কাঁচা মরিচ যে কারণে খাবেন?

শুধু স্বাদের জন্যই নয়, শরীর ঠিক রাখতে কাঁচা মরিচ খাওয়া উচিত প্রত্যেক স্বাস্থ্যসচেতন ব্যক্তিরই। প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় কাঁচা মরিচ থাকলে আপনি সহজেই বেশকিছু শারীরীক সমস্যাকে দূরে সরিয়ে রাখতে পারবেন।

এই কাঁচা মরিচের ভেতর রয়েছে বিশেষ এক উপাদান ক্যাপসাইকিন যা মরিচের ঝাল বাড়ায়। এই ক্যাপসাইকিনে আছে ভিটামিন এ, সি, বি-৬, আয়রন, পটাশিয়াম এবং খুবই সামান্য পরিমাণে প্রোটিন ও কার্বোহাইড্রেট। এই উপাদানগুলো মুখে লালা আনে। ফলে খেতে মজা লাগে।

প্রতিদিন যদি দুটো মাত্র কাঁচা লঙ্কা আপনি খান, তাহলে দূর হয়ে যাবে আপনার অনেক শারীরিক সমস্যাই। এছাড়াও আমাদের আজকের এই প্রতিবেদন থেকে চলুন জেনে নেওয়া যাক কাঁচা মরিচের বিস্ময়কর আরও কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে-

কাঁচা মরিচে পর্যাপ্ত পরিমাণে বিটা ক্যারোটিন, অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস এবং এন্ডোরফিন উপলব্ধ যা শরীরে ইতিবাচক প্রভাব ফেলে।

ডায়াবেটিসের অন্যতম সেরা চিকিৎসা হল কাঁচা মরিচ। নিয়মিত কাঁচা মরিচ খেলে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে।

কোলেস্টেরলের মাত্রাকেও নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে কাঁচা মরিচ। যার ফলে হ্রাস পায় হৃদরোগের ঝুঁকিও।

ওজন কমানোর জন্য কাঁচা মরিচ খাওয়া একটি ভালো উপায়। এটি ক্যালোরি ঝরায় এবং বিপাক ক্রিয়াকে বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

অ্যান্টি অক্সিড্যান্ট ও ভিটামিন সি থাকায় কাঁচা মরিচ ত্বকের ক্ষেত্রেও সহায়ক। এটি বলিরেখা ও ত্বকের বার্ধক্য হ্রাস করতে সাহায্য করে।

কাঁচা মরিচ খেলে মস্তিষ্কে একটি হরমোন নিঃসৃত হয়। যার কারণে মানসিক চাপ কমে এবং মন ও মেজাজ ভাল থাকে।

কাঁচা মরিচ মধ্যে অ্যান্টি অক্সিড্যান্ট রয়েছে যা ক্যান্সার প্রতিরোধে সক্ষম। বিশেষত পুরুষদের মধ্যে প্রস্টেটের ক্যান্সার ঝুঁকি হ্রাস করতে সাহায্য করে কাঁচা মরিচ।

Facebook Comments Box

Comments

comments

advertisement

Posted ১০:১৪ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর ২০২১

সংবাদমেইল |

advertisement
advertisement
advertisement

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো. মানজুরুল হক

নির্বাহী সম্পাদক: মো. নাজমুল ইসলাম

বার্তা সম্পাদক : শরিফ আহমেদ

কার্যালয়
উপজেলা রোড, কুলাউড়া, মেলভীবাজার।
মোবাইল: ০১৭১৩৮০৫৭১৯
ই-মেইল: sangbadmail2021@gmail.com

sangbadmail@2016 কপিরাইটের সকল স্বত্ব সংরক্ষিত