৫১ ঘন্টা বিদ্যুৎহীন থাকার পর কুলাউড়া রেলওয়ে জংশন আলোয় আলোকিত

স্টাফ রিপোর্টার,সংবাদমেইল২৪.কম | ২৮ অক্টোবর ২০১৮ | ৬:১০ অপরাহ্ন
অ+ অ-

কুলাউড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশনের অন্তর্ভূক্ত বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার হঠাৎ করে বিকল হয়ে যাওয়ায় ৫১ ঘন্টা বিদ্যুৎহীন অবস্থায় থাকার পর কুলাউড়া রেলওয়ে জংশন আলোয় আলোকিত হয়ে উঠে। স্টেশনের বড় জেনারেটর না থাকায় শুক্রবার ও শনিবার পুরো রাত অন্ধকারে ছিলো স্টেশন প্লাটফর্ম এবং ওয়েটিংরুম। এতে করে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হয় বিভিন্ন গন্তব্যে যাওয়ার জন্য আসা যাত্রী সাধারণ। এছাড়াও স্টেশনের কর্মরত টিকেট কাউন্টার সহ অন্যান্য বিভাগের সাময়িক সমস্যার সম্মুখিন হতে হয়েছে।

২৬ অক্টোবর শুক্রবার সকাল ১১টা থেকে ২৮ অক্টোবর রোববার দুপুর ২টা পর্যন্ত টানা ৫১ ঘন্টা পর্যন্ত রেলওয়ে জংশনটি বিদ্যুৎহীন ছিলো।



বিদ্যুৎ না থাকায় বিকল্প ছোট জেনারেটর দিয়ে রেশনিং পদ্ধতিতে ট্রেনের যাত্রার সময় শুধু টিকেট প্রদান করা হয়। এ কারণে টিকেট কাউন্টারে অগ্রিম ট্রেনের টিকেট সংগ্রহ করতে আসা যাত্রী সাধারণ পড়তেদ হয়েছে চরম বিপাকে। দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে টিকেট সংগ্রহ করতে হয়েছে যাত্রীদের। যাত্রীরা অন্ধকারে বসে ট্রেনের জন্য অপেক্ষারত অবস্থায় স্টেশনে টোকাই ও ছিনতাইকারীর ভয়ে আতংকে সময় পার করেছেন যাত্রীরা।

স্টেশন মাস্টার মফিজুল ইসলাম বলেন, শুক্রবার সকাল ১১ টায় স্টেশন সংল্গনে বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমারটি হঠাৎ করে বিকট শব্দ করে বিকল হয়ে যায়। সরকারী ছুটি থাকায় ঐদিন রেলওয়ে বিদ্যুৎ প্রকৌশলী ও কর্মচারীরা কেউ আসেননি। একটি ছোট জেনারেটর থাকায় শুধুমাত্র ট্রেনের সময় হলে সেটি চালু করে যাত্রীদের টিকেট সাময়িক টিকেট প্রদান করা হয়েছে। তিনি আরো জানান,৫১ ঘন্টা বিদ্যুৎহীন স্টেশন থাকার পর ২৮ অক্টোবর রোববার দুপুর আড়াইটার দিকে নতুন ট্রন্সফরমার লাগানো হলে আলোকিত হয়ে উঠে স্টেশনটি।

কুলাউড়া বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ কেন্দ্রের উপ সহকারী প্রকৌশলী সিরাজুল ইসলাম বলেন, এটা আমাদের দায়িত্বের মধ্যে পড়েনা। বিষয়টি রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের ব্যাপার। আমরা শুধু বিদ্যুৎ সরবরাহ করে থাকি। রেল ও বিদ্যুৎ বিভাগের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া বিকল্প ট্রান্সফরমার থেকে রেল স্টেশনে আলাদাভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা আমাদের দ্বারা সম্ভব না থাকায় এসমস্যার সৃষ্টি হয়েছে।

সিলেট বিভাগীয় প্রকৌশলী (কুলাউড়ার দায়িত্বে থাকা) আসাদ উদ দৌলা বলেন,ঢাকা থেকে ট্রান্সফরমার আনার পর রবিবার দুপুর আড়াইটার দিকে লাগানোর পর বিদ্যুৎ সচল করা হয়েছে।

Comments

comments

পড়া হয়েছে 218 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত