সোমবার থেকে দুর্গাপূজা শুরু: প্রস্তুত কুলাউড়ার ২১৬টি পূজামান্ডপ

স্টাফ রিপোর্টার,সংবাদমেইল২৪.কম | ১৪ অক্টোবর ২০১৮ | ৬:৪৫ অপরাহ্ণ
অ+ অ-

আগামীকাল সোমবার থেকে শুরু হচ্ছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। এ উপলক্ষে কুলাউড়া উপজেলার ২ শতাধিক পূজামান্ডপ প্রস্তুত। ইতিমধ্যে মান্ডপ গুলো লাল নীল রং বেরং এর আলোক সজ্জায় সজ্জিত করা হয়েছে। ও পূজায় দর্শনার্তীদের নিরাপত্তায় পুলিশ,র‌্যাবের পাশাপাশি আনসার সদস্যরা প্রস্তুত রয়েছেন। তারা নিজ নিজ দায়িত্বরত পূজামান্ডপ গুলোতে সার্বক্ষনিক নিরাপত্তায় নিয়োজিত রয়েছেনে। কাকডাকা ভোর থেকে শুরু করে গভীর রাত পর্যন্ত রং আর তুলির আঁচড়ে প্রতিমাশিল্পীরা দেবীর রূপায়ণের কাজ শেষ করে এখন বেল ষষ্ঠাদির মাধ্যমে পূজা অর্চনা শুরু করছেন আজ থেকে।

পূজা উদ্যাপন পরিষদের কুলাউড়া উপজেলা সভাপতি অরবিন্দু ঘোষ বিন্দু ও সম্পাদক নির্মাল্য মিত্র সুমন জানান, সর্বজনীন ১৯৩টি এবং ব্যক্তিগত ২৩টি পূজামান্ডপসহ উপজেলায় এবার মোট ২১৬টি পূজাম-পে অনুষ্ঠিত হবে শারদীয় দুর্গাপূজা। এর মধ্যে পৌর এলাকার ৮টিসহ উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে মোট ২১৬টি পূজামান্ডপ তৈরি করা হয়েছে।

পূজা পরিষদ সূত্রে জানা যায়, ১৫ অক্টোবর সোমবার ষষ্ঠীপূজার মধ্য দিয়ে শুরু হবে সর্বজনীন এ উৎসব। এবারের পূজায় টিলাগাঁও ইউনিয়নে ৩৬টি, হাজীপুরে ২৫টি, পৃথিমপাশায় ২১টি, কর্মধায় ১৭টি, জয়চন্ডীতে ১৫টি, কাদিপুরে ১৫টি, রাউৎগাঁওয়ে ১২টি, শরীফপুরে ১২টি, ব্রাহ্মণবাজারে ১০টি, বরমচালে ৬টি, ভাটেরায় ৫টি, ভূকশিমইলে ৬টি, কুলাউড়া সদরে ৫টি এবং পৌর এলাকায় ৮টি পূজামান্ডপ রয়েছে। পৌরসভা, ভাটেরা, শরীফপুর ও কর্মধা ছাড়া অন্যান্য এলাকায় মোট ২৩টি ব্যক্তিগত পূজামান্ডপ রয়েছে।

জয়চন্ডী ইউনিয়নের রঙ্গিরকুল আশ্রম এলাকার প্রতিমাশিল্পী আকাশ জানান, আশ্বিন মাসের প্রথম থেকে তারা প্রতিমা তৈরি শুরু করেছিলেন। রবিবার থেকে প্রতিমাগুলো রং ও পোশাক-পরিচ্ছদে সুসজ্জিত করা হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কুলাউড়া সার্কেল) আবু ইউছুফ জানান, দুর্গাপূজা শান্তিপূর্ণভাবে উদযাপনের জন্য পুলিশ প্রশাসনের বিশেষ টিম মাঠে থাকবে। উপজেলার বৃহৎ পূজামান্ডপ গুলোতে সিসিটিভি সেট করা হবে। তাছাড়া নির্বিঘ্নে উৎসব উদযাপন করার স্বার্থে সর্বোচ্চ নিরাপত্তাব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে।

মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহ্জালাল জানান, দূর্গাপূজা উপলক্ষে সার্বিক নিরাপত্তার জন্য মান্ডপগুলোতে আনসার সদস্যদের বাইরেও পুলিশ, ডিবি সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন। পূজা মান্ডপের আশপাশে র‌্যাবের সার্বক্ষণিক টহল থাকবে।

Comments

comments

পড়া হয়েছে 220 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত