সহযোগিতার হাত বাড়ালেই বাঁচবে বড়লেখার তাজির

বড়লেখা প্রতিনিধি,সংবাদমেইল২৪.কম | ৩০ নভেম্বর ২০১৯ | ২:৫৬ অপরাহ্ন
অ+ অ-

বাবা নেই। অভাবের সংসার। কোনোমতে পরিবারের হাল ধরেছিলেন তাজির আহমদ (২৪)। কিন্তু জিবিএস রোগ ধরা পড়ার পর থেকে তাজিরও এখন পড়ে আছেন বিছানায়। এই অবস্থায় চোখে-মুখে অন্ধাকার দেখছে তাজিরের পরিবার।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তাজিরকে বাঁচাতে কয়েক লাখ টাকার প্রয়োজন। কিন্তু পরিবারের আর্থিক দূরবস্থার কারণে তাঁর চিকিৎসা করা কঠিন হয়ে পড়েছে। এই অবস্থায় তাজিরকে বাঁচাতে বিত্তনাবনদের সহযোগিতা কামনা করেছেন তাজিরের পরিবার।



ইতিমধ্যে তাজিরের সাহায্যের্থে এগিয়ে এসেছে বড়লেখা ফ্রেন্ডস ক্লাব নামে একটি সামাজিক সংগঠন। সংগঠনটি তাজিরের চিকিৎসার জন্য মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে।

জানা গেছে, তাজির আহমদ উপজেলার বর্ণি ইউপির পাকশাইল গ্রামের মৃত আছদ্দর আলীর ছেলে। পরিবারে মা আর এক বোন আছে তাঁর। সংসারের হাল ধরতে প্রায় ১০ বছর আগে বড়লেখা কলেজ লাইব্রেরিতে কর্মচারি হিসেবে কাজ শুরু করেন। এখান থেকে প্রাপ্ত মাসিক আয়ে দিয়ে কোনোমতে চলতো তাদের সংসার। প্রায় দেড়মাস আগে পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে তাজিরের জিবিএস (গুলিয়ান বারি সিনড্রোম) রোগ ধরা পড়ে। এরপর থেকেই বিছানায় পড়ে আছেন তিনি।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তাজিরকে বাঁচাতে হলে কয়েক লাখ টাকার প্রয়োজন। কিন্তু চিকিৎসাটি অত্যন্ত ব্যয়বহুল হওয়ায় তাজিরের পরিবারের পক্ষে তাঁর উন্নত চিকিৎসা করা সম্ভব হচ্ছে না। এই অবস্থায় তাজিরকে বাঁচাতে সবার সহযোগিতা কামনা করেছেন তাজিরের পরিবার।

এদিকে তাজিরের চিকিৎসার জন্য তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছে বড়লেখা ফ্রেন্ডস ক্লাব নামে একটি সামাজিক সংগঠন। তারা তাজিরের উন্নত চিকিৎসার জন্য মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরে অর্থ সংগ্রহ করছেন।

বড়লেখা ফ্রেন্ডস ক্লাবের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম তৌফিক বলেন, তাজির ভাই পরিবারে একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। হঠাৎ তাঁর জিবিএস রোগ ধরা পড়ায় উনার মা অসহায় পড়েছেন। তাদের আর্থিক অবস্থা খুবই খারাপ। সেজন্য চিকিৎসা করতে পারছে না। তাই আমরা তাঁর চিকিৎসার জন্য এগিয়ে এসেছি। সমাজের সবাই এগিয়ে এলে তাজির ভাই সুস্থ হয়ে উঠবেন।

তাজিরকে সাহায্য পাঠাতে চাইলে যোগাযোগ করুন-০১৭০৪-৯২২৫২২ অথবা ফ্রেন্ডস ক্লাবের সভাপতি তৌফিকের মুঠোফোনে যোগাযোগ করুন-০১৩১৬-০০৫৭১৩

Comments

comments

পড়া হয়েছে 123 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত