মৌলভীবাজার শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা পেলেন ৫ গুণীজন

বিশেষ প্রতিনিধি,সংবাদমেইল২৪.কম | ০৭ এপ্রিল ২০১৯ | ৪:৪৭ অপরাহ্ন
অ+ অ-

শিল্প সংস্কৃতির অগ্রযাত্রার বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় মৌলভীবাজার জেলা শিল্পকলা একাডেমি মৌলভীবাজারের ৫ গুণী ব্যক্তিকে সম্মাননা প্রদান করেছে।

(৬ এপ্রিল) শনিবার সন্ধ্যায় মৌলভীবাজার জেলা শিল্পকলা একাডেমির আয়োজনে  জেলার সাইফুর রহমান অডিটোরিয়ামে ‘জেলা শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা ২০১৮” প্রদান করা হয়।



কমলগঞ্জ উপজেলার ঘোষপুর গ্রামের অধ্যক্ষ রসময় মোহান্ত’র লেখা সিলেট অঞ্চলের লোকসাহিত্য পরিক্রমা, সিলেট অঞ্চলের আদিবাসী প্রেক্ষিত ও শব্দকর সমাজ সমীক্ষাসহ ১৪টি গ্রন্থের জন্য লোকসংস্কৃতিতে তাকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। শ্রীভূমি সিলেটে রবীন্দ্রনাথ, সিলেটে নজরুল, মৌলভীবাজারের সাহিত্যসহ ৯০টি গ্রন্থের রচয়িতা শ্রীমঙ্গলের গন্ধর্ব্বপুর গ্রামের অধ্যাপক নৃপেন্দ্র লাল দাশকে সৃজনশীল সংস্কৃতি গবেষক হিসেবে সম্মাননা স্মারকে ভূষিত করা হয়। কুলাউড়ার পশ্চিম গুড়াভুই গ্রামের বাউল রানু সরকার লিখেছেন অসংখ্য লোকগান ও আধ্যাত্মিক গান। তিনি যেমন গেয়েছেন তেমনি তার লেখা গানে সুর করেছেন শিল্পী মমতাজ, শাহনাজ বেলী, বেবী নাজনীনসহ অনেক খ্যাতনামা শিল্পী। তিনি সংগীতে বিশেষ অবদান রাখায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি কণ্ঠসংগীতে তাঁকে দিয়েছে সম্মাননা । টুঙ্গিপাড়ার মাজার, বীরের জননী, দুঃখিনী বাংলা মাসহ যাত্রাপালা রচয়িতা শ্রীমঙ্গল উপজেলার রামনগর গ্রামের বীর প্রতীক ফোরকান উদ্দিনকে যাত্রাশিল্পে সম্মাননা ২০১৮ প্রদান করেছে। মৌলভীবাজার শহরে জন্ম নেওয়া সৌমিত্র দেব ৪১টি গ্রন্থ লেখার পাশাপাশি অভিনয় করেছেন টেলিফিল্ম হিডেন শ্যাডোস, মাসুদ পথিক পরিচালিত জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ, স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্ছিত্র ডাকঘর। তার অভিনয় প্রতিভার মূল্যায়ন করে জেলা শিল্পকলা চলচ্চিত্রে তাকে সম্মাননা দিয়েছে। সম্মাননা প্রাপ্ত গুণী ব্যক্তিবর্গকে উত্তরীয় ও মেডেলসহ ১০ হাজার টাকার চেক এবং সম্মাননা স্মারক দেওয়া হয়।

সম্মাননা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মো. তোফায়েল ইসলাম। কালচারাল অফিসার জ্যোতি সিনহার সঞ্চালনায় এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন মৌলভীবাজার-৩ আসনের এমপি নেছার আহমদ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান, মৌলভীবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. ফজলুল আলী, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহজালাল, সদর উপজেলা চেয়ারম্যন কামাল হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আশরাফুর রহমান, ডা এম এ আহাদ।

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক মিন্টু।

বক্তব্য দেন নাট্য ব্যক্তিত্ব আব্দুল মতিন, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অপূর্ব কান্তি ধর, এ এইচ এম শাহাব উদ্দিন প্রমুখ।

এরপর জেলা শিল্পকলা একাডেমির শিল্পীদের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় নাটক ইছামতির বাঁকে এবং সংগীতের তালে তালে নৃত্য ও মনোজ্ঞ সুর মুর্ছনায় গান।

Comments

comments

পড়া হয়েছে 100 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত