মানবতাবিরোধী অপরাধে হবিগঞ্জে আ.লীগ নেতা গ্রেপ্তার

হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি,সংবাদমেইল২৪.কম | ১১ এপ্রিল ২০১৭ | ৮:১২ অপরাহ্ন
অ+ অ-

হবিগঞ্জ: মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে অভিযুক্ত হবিগঞ্জের আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল খায়ের গোলাপকে গ্রেপ্তার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।

মঙ্গলবার সকাল ১১টায় তাকে নবীগঞ্জ উপজেলার গজনাইপুর গ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার জয়দেব কুমার ভদ্র।



জানা গেছে, গোলাপের বিরুদ্ধে ১৯৭১ সালে পাক হানাদার বাহিনীর সহায়তায় একাধিক মুক্তিযোদ্ধাসহ অন্তত ২০ নিরীহ স্বাধীনতাকামী মানুষকে নির্মমভাবে হত্যা, ধর্ষণ, অপহরণ ও বাড়ি-ঘরে অগ্নিসংযোগের অভিযোগ রয়েছে।

গ্রেপ্তার আবুল খায়ের গোলাপ গজনাইপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান।

২০১৬ সালের ১৩ মার্চ আন্তর্জাতিক ট্রাইব্যুনাল ধানমন্ডি আবাসিক এলাকায় অবস্থিত অফিসে নবীগঞ্জ উপজেলার আতানগীরি গ্রামের রইছ উল্লার স্ত্রী সুকুরি বিবি এক অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, সাবেক চেয়ারম্যান গোলাপ ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধ চলাকালীন আলবদর আল-সামস ও রাজাকার বাহিনীর সংগঠক ছিলেন। গোলাপের নেতৃত্বে স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় দিনারপুর হাই স্কুলে ক্যাম্প স্থাপন করে বিভিন্ন স্থান থেকে তরুণীদের ধরে এনে ধর্ষণসহ পাশবিক অত্যাচার নির্যাতন করা হতো।

অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য হবিগঞ্জের পুলিশ সুপারকে নির্দেশ দেন বিচারক। হবিগঞ্জ ডিবি পুলিশের তৎকালীন ওসি মোক্তাদির হোসেন দীর্ঘ তদন্ত শেষে ২০১৬ সালের ৩১ জানুয়ারি চেয়ারম্যান আবুল খায়ের গোলাপের বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ এনে প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, চেয়ারম্যান আবুল খায়ের গোলাপ মানবতাবিরোধী অপরাধের সঙ্গে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত ছিলেন।

সংবাদমেইল২৪.কম/এন আই/জে এইচ জেড

Comments

comments

পড়া হয়েছে 398 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত