বড়লেখায় বোনকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় ভাইকে ছুরিকাঘাত

বড়লেখা প্রতিনিধি,সংবাদমেইল২৪.কম | ১৮ জুলাই ২০১৮ | ৯:৪৪ অপরাহ্ন
অ+ অ-

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় বোনকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় ভাইকে ছুরিকাঘাত করে আহত করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আহত ওই কলেজ ছাত্রের নাম তোফাজ্জুল হোসেন রাব্বি (১৭)। তাকে আহতবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। রাব্বি বড়লেখা ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্র এবং উপজেলার দাসেরবাজার ইউনিয়নের সুড়িকান্দি বাদেজঙ্গল গ্রামের মৃত ফারুক উদ্দিনের ছেলে।



গতকাল ১৭ জুলাই মঙ্গলবার দুপুর দুইটার দিকে পৌরশহরের উত্তরবাজার এলাকায় এই ঘটনাটি ঘটে। এদিকে এই ঘটনার প্রতিবাদে কলেজের শিক্ষার্থীরা প্রায় ১ ঘন্টা কুলাউড়া-চান্দগ্রাম আঞ্চলিক মহাসড়কে টায়ারে অগ্নিসংযোগের মাধ্যমে অবরোধ করে রাখে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারের আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা তাদের অবরোধ প্রত্যার করে নেয়। এ ঘটনায় আহত কলেজ ছাত্র রাব্বি বড়লেখা থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

পুলিশ, কলেজ শিক্ষার্থী ও অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বড়লেখা পৌরশহরের পাখিয়ালা এলাকার মানিক মিয়ার ছেলে রেহান আহমদ (১৫) সহ কয়েকজন কিশোর প্রায়ই স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের উত্ত্যক্ত করে। সম্প্রতি রেহানের বন্ধুরা বড়লেখা ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্র তোফাজ্জুল হোসেন রাব্বির বোন একই শ্রেণীর ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করে। বোনকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করেন তোফাজ্জুল হোসেন রাব্বি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে রেহান ও তার সহযোগিরা। এর জের ধরেই ১৭ জুলাই মঙ্গলবার দুপুরে বড়লেখা পৌরশহরের উত্তর বাজার এলাকায় রেহানের নেতৃত্বে ওলিদ, জাকির, সিদ্দিক, রাবিন, শাওনসহ ৭-৮জন যুবক রাব্বিকে একা পেয়ে তার ওপর হামলায় চালায়। এসময় তারা তাকে মাথায় ছুরিকাঘাত ও মারধর করে করে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে প্রত্যক্ষদর্শীরা রাব্বিকে আহতবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ সহিদুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘কলেজের শিক্ষার্থীকে কয়েকজন যুবক মারধর করেছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।’

Comments

comments

পড়া হয়েছে 357 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত