ফরহাদ মজহার যশোর থেকে উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার,সংবাদমেইল২৪.কম | ০৪ জুলাই ২০১৭ | ৮:৫৭ পূর্বাহ্ন
অ+ অ-

আঠারো ঘণ্টা পর যশোর থেকে উদ্ধার হয়েছেন ‌কবি ও প্রাবন্ধিক ফরহাদ মজহার। র‌্যাবের একটি দল তাকে যশোরের নোয়াপাড়ায় হানিফ পরিবহনের একটি বাস থেকে উদ্ধার করেছে। পরে তাকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে অভয়নগর থানায়। ফরহাদ মজহারের স্ত্রী ফরিদা আক্তার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সোমবার সকালে শ্যামলীর নিজ বাসা থেকে ফরহাদ মজহার অপহৃত হন বলে দাবি করে তার পরিবার। ১৮ ঘণ্টা পর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতায় তাকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে বলে জানান তার স্ত্রী।



ফরহাদের স্ত্রী ফরিদা  বলেন, “ফরহাদের উদ্ধারের খবর পেয়েছি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর মাধ্যমে। র‌্যাবের একজনের মোবাইলের তার সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তবে তিনি বেশি কিছু বলতে পারেননি। কেবল বলেছেন, তিনি র‌্যাবের কাছে আছেন “

ফরহাদ মজহারকে উদ্ধারের পর যশোরের অভয়নগর থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানা যায়। তিনি বলেন, “নোয়াপাড়ায় ঢাকাগামী হানিফ পরিবহনে তিনি আছেন এ খবর পেয়ে র‌্যাব সেখানে ছুটে যায়। পরে সেখান থেকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। তখন একজন র‌্যাব সদস্যের মোবাইলে আমার সঙ্গে একটু কথা হয়েছে। তিনি সুস্থ আছেন। তবে তাকে ক্লান্ত মনে হয়েছে। সুস্থভাবে বাসায় আসা পর্যন্ত শান্তি পাচ্ছি না।”

যশোর অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিসুর রহমান  বলেন, ‍”রাত সাড়ে ১১টায় তাকে থানায় আনা হয়ছে। এখন আমাদের হেফাজতেই আছেন। পুলিশ ও র‌্যাবের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এখানে আছেন। পরবর্তী সিদ্ধান্ত তারাই নেবেন।”

এর আগে রাত ৮টার দিকে খুলনার নিউ মার্কেটের সামনের রেস্তোরাঁ ‘নিউ গ্রিল হাউসে তাকে খেতে দেখেছেন বলে দাবি করেছেন রেস্তোরাঁর মালিক আব্দুল মান্নান। তিনি সঙ্গে সঙ্গে র‌্যাবকে খবর দেন। তার খবরের ভিত্তিতে সেখানে র‌্যাব অভিযান চালায়।

দুপুরের পর থেকেই ফরহাদ মজহারের মোবাইল ফোন ট্র্যাক করে তার অবস্থান খুলনায় শনাক্ত করার জানিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তারপর থেকে সেখানে অভিযান চালানো হয়। শহরের মোড়ে মোড়ে তল্লাশি চৌকি বসানো হয়। কিন্তু তাকে সেখানে পাওয়া যায়নি। তবে রাত ৮টার দিকে নিউমার্কেটের ওই রেস্তোরাঁয় ভাত খেয়েছেন বলে জানা যায়।

উদ্ধারের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ার ফরহাদের স্ত্রী ফরিদা আক্তার  বলেন, “কিছু বলার মতো ভাষা নেই। আমরা এই পুরো সময়টা ভীষণ উৎকণ্ঠায় ছিলাম। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সহযোগিতা করেছে। তবে আমাদেরকে এতোসময় উৎকণ্ঠায় রাখার দায়ভার কে নেবে?”

এদেকে একটি সূত্র জানিয়েছে, ফরহাদ মজহার কীভাবে খুলনায় গিয়েছেন সে বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তাকে ঢাকার আদাবর থানায় স্থানান্তরের প্রক্রিয়াও চলছে।

প্রসঙ্গত, বিএনপিপন্থী লেখক হিসেবে পরিচিত ফরহাদ মজহার ঢাকার শ্যামলীর নিজ বাসার নিচ থেকে নিখোঁজ হন সোমবার ভোর সাড়ে ৫টায়। তারপর তার ফোন থেকে স্ত্রী ফরিদা আক্তারকে জানান, তাকে অপহরণ করা হয়েছে। তাকে ঢাকার বাইরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। ৩৫ লাখ টাকা দিলে তাকে ছেড়ে দেয়া হবে। এরপর থেকে আর তার সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

নিজেকে ধর্মনিরপেক্ষ দাবি করা এ লেখক ইদানিং ইসলামী রাষ্ট্রব্যবস্থার পক্ষে বক্তব্য দেন। ২০১৫ সালে তিনি হেফাজতের পক্ষ নিয়েও বক্তব্য দিয়েছিলেন। তাছাড়া আওয়ামী লীগ ও ভারতের বিপক্ষেও তার অনেক বক্তব্য রয়েছে।

সংবাদমেইল২৪.কম/জেএ/এন আই

Comments

comments

পড়া হয়েছে 408 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত