ক্ষুদ্র-নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠীর মাঝে কুলাউড়া উপজেলা চেয়ারম্যানের খাদ্যসামগ্রী উপহার

স্টাফ রিপোর্টার : | ০৪ এপ্রিল ২০২০ | ৩:১৬ অপরাহ্ণ
অ+ অ-

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় করোনা পরিস্থিতিতে ২৪টি আদিবাসী পুঞ্জির ১৫০ ক্ষুদ্র নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠীর মাঝে খাদ্যসামগ্রী উপহার দেন কুলাউড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ কে এম সফি আহমদ সলমান। এ সময় করোনা সংক্রমণরোধে ৭ শতাধিক সার্জিক্যাল মাস্কও প্রদান এবং আদিবাসীদের সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী বাড়িতে থাকার পরামর্শ দেন তিনি।
উপহার সামগ্রী হাতে পেয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় উপজেলার সামাইজুড়ী পুঞ্জির শান্তি পথ মি, কাটাজুড়ী পুঞ্জির পূর্ণ সিমসাম, লবনছড়া পুঞ্জির সিলভার স্টার বলেন, আমরা পুঞ্জিতে বসবাস করি। পান চাষ করে আমাদের জীবিকা নির্বাহ করি। কিন্তু বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি সবকিছু বন্ধ থাকায় আমরা মানবেতর জীবন যাপন করছি। করোনার মধ্যে দিয়েও আমাদের পুঞ্জির পান চুরি হচ্ছে। আমরা যাবো কার কাছে। সত্যিকার অর্থে আমরা পাহাড়ের ভিতরে থাকি বলে কেউ আমাদের দিকে ফিরে তাকায় না। কষ্টের কথা শুনে উপজেলা চেয়ারম্যান সাহেব আমাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন সেজন্য আমরা খুশি এবং কৃতজ্ঞ জানাই।
আদিবাসী নেত্রী ফ্লোরা বাবলী তালাং বলেন, এই প্রথমবারের মত আমরা ক্ষুদ্র নৃ তাত্ত্বিকগোষ্ঠীরা পেয়েছি কোন উপহার সামগ্রী। দেশের বিভিন্ন দুর্যোগের সময় আমরা থাকি অবহেলিত। কেউ আমাদের খোঁজ রাখে না। একমাত্র উপজেলা চেয়ারম্যান মহোদয় আমাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন।
উপহার সামগ্রী প্রদানের সময় উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ টি এম ফরহাদ চৌধুরী, কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইয়ারদৌস হাসান, আওয়ামী লীগ নেতা মছলু আমীন, উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক ফুয়াদ আলম চৌধুরী, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নিয়াজুল তায়েফ, লক্ষীপুর খ্রিস্টিয়ান মিশনের ফাদার ভ্যালেন্টাইন, ফাদার জোসেফ, আন্তপুঞ্জি উন্নয়ন সংগঠন কুবরাজের সভাপতি প্রত্যুষ আসাক্রা, সাধারণ সম্পাদক ফ্লোরা বাবলী তালাং, আদিবাসী নেত্রী মনিকা খংলা, ইউপি সদস্য সিলভার স্টার পাঠান, ব্যবসায়ী আশিকুর রহমান মুন্না, ছাত্রনেতা শামছুল ইসলাম, তানিম আহমদ চৌধুরী, রুহেল সাদি, খায়রুল ইসলাম প্রমুখ।
সূত্র জানায়, এর আগে উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ৪১০ জন দুস্থ মানুষের মাঝে ত্রাণ সহায়তা দিয়েছেন উপজেলা চেয়ারম্যান এ কে এম সফি আহমদ সলমান। এ ছাড়া ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে ৭০০ কর্মজীবী মানুষের জন্য উপহার সামগ্রী হিসেবে খাদ্য সহায়তা প্রদান করছেন। এরমধ্যে ক্ষুদ্র নৃ তাত্ত্বিক জনগোষ্ঠীর মধ্যে ১৫০টি পরিবারে খাদ্য সহায়তা হিসেবে উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়। উপহার সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে ৫ কেজি চাউল, ৩ কেজি আলু, ১ লিটার সয়াবিন তেল, ১ কেজি ডাল, ১ টি সাবান। এ ছাড়া বিভিন্ন ইউনিয়নের কর্মহীন মানুষদের মধ্যে ১ লাখ টাকা ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে আর্থিক সহযোগিতা করেছেন। ২৫০০ সার্জিক্যাল মাস্ক ধারাবাহিকভাবে বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রাখছেন।
এদিকে কুলাউড়া ও সিলেটে ব্যক্তি মালিকানাধীন বাসায় ভাড়াটেদের এক মাসের ভাড়া মওকুফ করেছেন তিনি।
উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ কে এম সফি আহমদ সলমান জানান, দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে সরকারের পাশাপাশি ব্যক্তিগত উদ্যোগে সমাজের সকলকে এগিয়ে আসতে হবে কর্মহীন মানুষের পাশে। সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকে ওই সকল কর্মহীন মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর ক্ষুদ্র এ প্রচেষ্ঠা। এটা কোন ত্রাণ নয় এটা উপহার সামগ্রী হিসেবে দেওয়া হচ্ছে।



Comments

comments

পড়া হয়েছে 165 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
x