কুলাউড়া-ভূকশিমইল সড়কে ফাটল

স্টাফ রিপোর্টার,সংবাদমেইল২৪.কম | ২১ অক্টোবর ২০১৮ | ৫:৫৬ অপরাহ্ন
অ+ অ-

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিডি) আওতায় কুলাউড়া-ভূকশিমইল সড়কে সংস্কার কাজের ৯০ দিনের মাথায় প্রায় অর্ধ কিলোমিটার সড়কের বিভিন্ন স্থানে কার্পেট (পিচ ঢালাই) ফাটল দিয়ে ধসে পড়েছে।

সরেজমিন দেখা যায়, কুলাউড়া -ভূকশিমইল সড়কে ভূকশিমইল ইউনিয়নের প্রবেশদ্বার ছকাপনের কানেহাত গোগালী ছড়া ব্রীজ থেকে কানেহাত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন রাস্তার বিভিন্ন স্থানে প্রায় অর্ধ কিলোমিটার ধেবে গেছে। বাংলাদেশ সরকার ও বিশ্ব ব্যাংক আইডিএ অর্থায়নে সেকেন্ড রোরাল ট্রান্সপোর্ট ইম্প্রোভমেন্ট (আরটিআটি-২) প্রকল্পের মাধ্যমে এ কাজের দায়িত্ব পায় মোঃ মুহিবুর রহমান এর মালিকানাধীন ঠিকাদারী প্রতিষ্টান এম আর ট্রেডিং। এবং কাজের অগ্রগতি দেখার দায়িত্ব পান তদারকি কর্মকর্তা কুলাউড়া উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ ইসতিহাক হাসান। গত বছরের ৫ সেপ্টেম্বর কাজ শুরু হয়। কাজ সমাপ্তের মেয়াদ চলতি বছরের ৩১ মার্চ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও প্রায় ৩মাস আগে এই অংশের কাজটি সমাপ্ত করে এ প্রতিষ্ঠান। কিন্তুু নতুন কার্পেটিং (পিচ ঢালাই) কাজের তিন মাস যেতে না যেতেই আচমকা মূল সড়ক থেকে প্রায় ৪-৫ ফুট জায়গা ধেবে গিয়ে বিশাল ফাটলের সৃষ্টি হয়েছে। 



এ ব্যাপারে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের মালিক মোঃ মুহিবুর রহমান জানান, বৃষ্টির কারণে কাজ অনেকদিন বন্ধ ছিল। তবে কাজটি চলমান। যে জায়গায় ফাটল দেখা দিয়েছে সেটা আমরা মেরামত করবো। আমরা এখনো সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে কাজ শেষের দায়িত্বভার হস্তান্তর করিনি।

কাজের তদারকি কর্মকর্তা কুলাউড়া উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ ইসতিহাক হাসান বলেন, নির্দিষ্ট সময়ে শেষ হওয়া প্রকল্পের কাজটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের আবেদনের প্রেক্ষিতে কাজের মেয়াদ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। রাস্তার ফাটলের বিষয়টি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে চিঠির মাধ্যমে জানানো হয়েছে। তিনি এ কাজের বিল এখনো পাননি। তবে ধেবে যাওয়া স্থানটি পূর্ণ মেরামত করে দিতে তিনি বাধ্য।

Comments

comments

পড়া হয়েছে 344 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত