কুলাউড়া জালালিয়া মাদরাসার সেই সুপারের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের মানব বন্ধন: পুলিশের হস্তক্ষেপে বন্ধ

বিশেষ প্রতিনিধি,সংবাদমেইল২৪.কম | ১০ নভেম্বর ২০১৮ | ৩:০৪ অপরাহ্ণ
অ+ অ-

কুলাউড়া উপজেলার জালালীয়া দাখিল মাদরাসার সুপার মাওলানা আব্দুস শহিদ কর্তৃক ৯ম শ্রেণির ছাত্রীদের অশালীন আচরণ ও শ্লীতাহানীর প্রতিবাদে এবং ঘটনার স্ষ্ঠু বিচারের দাবীতে শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে মানব বন্ধন অনুষ্টিত হয়েছে।

(১০ নাভেম্বর) শনিবার সকাল ১০ টায় মাদরাসা প্রাঙ্গনে শিক্ষার্থীরা মানব বন্ধন কর্মসূচি শুরু করলে তাৎক্ষনিক কুলাউড়া থানার এসআই ইয়াছিন মিয়ার নেতৃত্বে একদল পুলিশ গিয়ে হস্তক্ষেপ করে মানববন্ধন বন্ধ করে দেয়। ফলে শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসীরা বৃহত্তম আকারে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করতে পারেনি।

মাদরাসার ৯ম শ্রেনীর শিক্ষার্থী আলিম উদ্দিন,সাইদুল ইসলাম,সাব্বির আহমদ ও ১০ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী মনিরুল ইসলাম,এমদাদুর রহমান রায়হান জানান,আমরা সকালে মাদরাসা প্রাঙ্গনে ব্যানার নিয়ে মানববন্ধনের প্রস্তুতি শুরু করি। কিন্তু হঠাৎ করে পুলিশ এসে আমাদেরকে বুঝিয়ে মানববন্ধন বন্ধ করে দেয়।

কুলাউড়া থানার এসআই ইয়াছিন মিয়া বলেন, খবর পেয়ে আমরা মাদরাসার শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে মানববন্ধন থেকে সরিয়ে দেই।

কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল লাইছ বলেন, এ ঘটনায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) সাদিউর রহিম জাদিদকে প্রধান করে তদন্তের জন্য দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য জালালীয়া দাখিল মাদরসার সুপার মাওলানা আব্দুস শহীদ কর্তৃক ৯ম শ্রেণির ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ এনে তার বিরুদ্ধে প্রথমে মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি,ইয়াকূব-তাজুল মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মো. আব্দুর রউফ এবং ১ নভেম্বর কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর ঘটনাটির সুষ্ঠ প্রতিকার চেয়ে অভিযোগ দিয়েছে ৯ম শ্রেণীর ওই ছাত্রী ও অভিবাবক।

Comments

comments

পড়া হয়েছে 430 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত