কুলাউড়ায় ব্যবসায়ীর প্রাণনাশের হামলার ঘটনায় আটক-২

বিশেষ প্রতিনিধি,সংবাদমেইল২৪.কম | ১১ নভেম্বর ২০১৮ | ৬:০২ অপরাহ্ণ
অ+ অ-

কুলাউড়া উপজেলার ব্রাহ্মণবাজারের ব্যবসায়ী সোহেল ট্রেডার্স এর স্বত্তাধীকারী সোহেল আহমদ ও আরিফুল ইসলামের ওপর সন্ত্রাসী হামলার জড়িত দুই জনকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃতরা হলো, উপজেলার ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামের আব্দুল কাইয়ুমের ছেলে সাইদুল ইসলাম লাকী (২৮) ও একই ইউনিয়নের শ্রীপুর গ্রামের তেরাব আলীর ছেলে মাইক্রোবাস গাড়ি চালক মো. রিয়াদুল ইসলাম (২২)। গত ১০ নভেম্বর মৌলভীবাজার আদালতের নির্দেশে তাদেরকে বর্তমানে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, গত ২ অক্টোবর রাত ৯টার দিকে ব্রাহ্মণবাজারের ব্যবসায়ী সোহেল আহমদ ও বাজারের আরেক ব্যবসায়ী মো. আরিফুল ইসলাম লোকমান ব্যবসা সংক্রান্ত কাজে মোটরসাইকেল যোগে কুলাউড়া শহরের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। পথিমধ্যে কৌলা এলাকার কাপুয়ার ব্রিজের পাশ্ববর্তী এলাকায় পৌঁছালে হঠাৎ পিছন দিক থেকে একটি মাইক্রোবাস সোহেলের মোটরসাইকেলের পিছু নেয়। এসময় মাইক্রোবাসের সামনের সিটের বামপাশে বসা এবং মাঝের বাম পাশে বসা দুইজন লোক সোহেল ও আরিফকে উদ্দেশ্য করে দেশীয় অস্ত্র রড এবং রাম দা দিয়ে উপর্যুপরী কোপাতে থাকে। অবস্থা বেগতিক দেখে মোটরসাইকেল চালক সোহেল গাড়ির গতি বাড়িয়ে পালানোর চেষ্টা করে। কিন্তু এরই মধ্যে দায়ের একটি কোপ মোটরসাইকেল আরোহী আরিফের মাথার পিছনে আঘাত করে। বাধ্য হয়ে মোটরসাইকেলের গতি কমিয়ে আনলে ওই ব্যক্তিরা সোহেলের মাথায়ও আঘাত করে মাইক্রোবাস নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় মানুষের সহযোগীতায় তারা কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নেন।

এঘটনায় সোহেল আহমদ বাদী হয়ে কুলাউড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে থানার ওসি (তদন্ত) সঞ্জয় চক্রবর্তী নিজে বিষয়টি তদন্ত করেন। এক পর্যায়ে মাইক্রোবাস সনাক্ত করে ওই গাড়ির ড্রাইভার রিয়াদকে আটক করা হয়। তার দেয়া জবানবন্দিতে গত ৯ নভেম্বর সাইদুল ইসলাম লাকীকে আটক করে পুলিশ। তারা ঘটনার দায় স্বীকার করে জবানবন্দী দিলে গত ১০ নভেম্বর আদালত তাদেরকে কারাগারে প্রেরণ করেন।

এবিষয়ে কুলাউড়া থানার ওসি (তদন্ত) সঞ্জয় চক্রবর্তী বলেন, লাকী ও গাড়ির ড্রাইভার রিয়াদ যেভাবে সোহেলকে আক্রমণ করেছে তা সিনেমার দৃশ্যকেও হার মানায়। ভাগ্যের কৃপায় সোহেল ও আরিফ বেঁচে গেছে। বিশেষ ব্যবস্থায় ঘটনার তদন্ত করে ওই মাইক্রোবাসকে সনাক্ত করি। পরে ড্রাইভার ও লাকীকে আটক করি। তারা উভয়ই ঘটনার স্বীকারোক্তি দিয়েছে।

Comments

comments

পড়া হয়েছে 1249 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত