নগদসহ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট

কুলাউড়ায় বাকিতে পণ্য না দেয়ায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ! আহত-২

স্টাফ রিপোর্টার,সংবাদমেইল২৪.কম | ০২ মে ২০১৯ | ৬:০০ অপরাহ্ন
অ+ অ-

কুলাউড়া শহরের উপজেলা রোডের মা-মনি লাইব্রেরী এন্ড ষ্টেশনারীতে হামলা চালিয়ে নগদ টাকাসহ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুটপাটের খবর পাওয়া গেছে। বাকিতে পণ্য না দেয়ার জের ধরে ৮-১০ জনের একদল দুস্কৃতিকারী এ হামলা চালিয়েছে বলে জানান দোকানের সত্বাধিকারী। এসময় দোকানের সত্বাধিকারীসহ দু’জন আহত হয়েছেন।

দোকানের সত্বাধিকারী সাব্বির আহমদ জানান, উপজেলা রোডের বাদশাহী বডিংয়ের সামনের মার্কেটে গত সাড়ে ৪ বছর যাবত ব্যবসা করে আসছেন তিনি। বৃহস্পতিবার (২ মে) সকালে বিছরাকান্দি এলাকার ট্রাক চালক সালাম মিয়া তার দোকান থেকে কিছু পণ্য কিনে তা বাকিতে নেয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু দোকানী সকালবেলা বাকিতে পণ্য দিতে অপরাগতা প্রকাশ করলে সালাম উত্তেজিত হয়ে তাকে অশ্লিল কথাবার্তা বলেন।



এমনকি এখানে ব্যবসা করতে হলে স্থানীয় লোকদের বাকিতে পণ্য দিতে হবে বলে হুমকিও দেন। এসময় তার শামীম আহমদ প্রতিবাদ করলে দু’জন বাক-বিতন্ডতায় জড়িয়ে পড়েন। কিছু সময় পর সালাম তার সহযোগী ৮-১০ জনকে নিয়ে এসে দোকানে হামলা চালায়। তাদের হামলায় সাব্বির আহমদ এবং তার ভাতিজা শামীম আহত হন। আশপাশের লোকজন এসে তাদেরকে উদ্ধার করে কুলাউড়া হাসপাতালে নিয়ে গেলে গুরুতর আহত শামীমকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করেন কর্তব্যরত ডাক্তার।

সত্বাধিকারী সাব্বির আহমদ আরও জানান, দুস্কৃতিকারীরা হামলা চালিয়ে নগদ ৭০ হাজার টাকা, ৩০০ পিস নন জুডিশিয়াল ষ্ট্যাম্পসহ প্রায় লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুটপাট করেছে। কুলাউড়া হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বিষয়টি তিনি কুলাউড়া প্রশাসন ও ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দকে অবহিত করলে তারা এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এব্যাপারে অভিযোগ দেয়ার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

এব্যাপারে কুলাউড়া ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক ময়নুল ইসলাম শামীম জানান, সামান্য বাকি টাকা নিয়ে ক্রেতা-বিক্রেতা বাক-বিতন্ডতায় জড়িয়ে পড়েন। কিছু সময় পর ক্রেতা তার লোকজন নিয়ে এসে আবারো ঝগড়া বাঁধেন। দোকানী ও তার কর্মচারী আহত হয়েছেন। মালামাল ছড়িয়ে-ছিটিয়ে পড়ে থাকতে দেখেছি। পুলিশ এসে উভয়কেই থানায় নিয়ে যায়। সেখান থেকে স্থানীয় কাউন্সিলর, ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ বিষয়টি আপোশ মিমাংশায় শেষ করে দেয়ার আশ্বাসে নিয়ে আসেন।

কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ ইয়ারদুস হাসান জানান, ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Comments

comments

পড়া হয়েছে 1995 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত