কুলাউড়ায় নিখোঁজের ৪ দিন পর পানজুম পাহারাদারের লাশ উদ্ধার আটক-৬

বিশেষ প্রতিনিধি,সংবাদমেইল২৪.কম | ১৬ অক্টোবর ২০১৯ | ৭:৩৩ অপরাহ্ন
অ+ অ-

কুলাউড়ায় নিখোঁজের ৪ দিন পর ইছমত আলী (৩০) নামক এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

(১৬ অক্টোবর) বুধবার  সকালে উপজেলার কর্মধা ইউনিয়নের পুটিছড়া পানপুঞ্জি এলাকার গভীর জঙ্গল থেকে এ লাশ উদ্ধার করে। নিহত ইছমত পৃথিমপাশা ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য মৃত ইছহাক আলীর ছেলে। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ ৬ জনকে আটক করেছে।



স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান এমএ রহমান আতিক জানান, ইছমত পুঁটিছড়া পানপুঞ্জির পার্শ্ববর্তী বিরোধপূর্ণ লম্বাছড়া পানপুঞ্জিতে পাহারাদার হিসেবে কাজ করতো। গত শুক্রবার ১১ অক্টোবর থেকে ইছমতের কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি। গত সোমবার নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় পানপুঞ্জির ফেরদৌস আহমদের স্ত্রী রোকেয়া বেগম কুলাউড়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। মঙ্গলবার বিভিন্ন তথ্যের সূত্রে রাত ৮টার দিকে স্থানীয় পুঁটিছড়া পানপুঞ্জিতে পুলিশ তল্লাশী শুরু করে।

পুলিশ জানায়, জিজ্ঞাসাবাদে এমন বিভিন্ন প্রাপ্ত তথ্যসুত্রে তল্লাশির এক পর্যায়ে পুটিছড়া পানপুঞ্জির বড় ভোগাছড়ায় ইছমতের লাশ মাটিতে পুতে রাখার খবর পায় পুলিশ। বুধবার সকালে বড় ভোগাছড়া থেকে প্রায় ৩ ফুট মাটির নিচ থেকে ইছমতের লাশ উদ্ধার করে কুলাউড়া থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

কুলাউড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সঞ্জয় চক্রবর্তী জানান, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চয়নুলা (৪০), আশা হকিডক (২২), রিয়া রিচিল (২২), জুনেল (২৫), সাজিদ (১৮) ও রোকেয়া বেগম (৩০) কে আটক করা হয়। আটককৃতরা হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত বলে পুলিমের কাছে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দিয়েছে। তিনি আরও জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মৌলভীবাজার মর্গে এবং আটক আসামীদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। কুলাউড়া থানার এসআই রহিম বাদি হয়ে হত্যা মামলা (নং ১০ তারিখ ১৬/১০/১৯) দায়ের করেছেন।

Comments

comments

পড়া হয়েছে 166 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত