কুলাউড়ার রাউৎগাঁওয়ে গরু চুরির হিড়িক

আশরাফুল ইসলাম জুয়েল,সংবাদমেইল২৪.কম | ২৫ নভেম্বর ২০১৯ | ৬:২৪ অপরাহ্ন
অ+ অ-

কুলাউড়া উপজেলার রাউৎগাঁও ইউনিয়নের গরু চুরির হিড়িক পড়েছে। সাম্প্রতি ওই এলাকা থেকে থেকে কৃষকের প্রায় ১৭ টি গরু চুরির ঘটনা ঘটেছে। চুরি হওয়া গরু ও মহিষের আনুমানিক মূল্য প্রায় ১০ লক্ষ টাকা হবে।

হঠাৎ করে গরু চুরির ঘটনায় আতংকে নির্ঘুম রাত পার করছেন অসহায় দিনমজুর কৃষকসহ গৃহপালিত পশুর মালিকরা। তবে এখন পর্যন্ত কোন গরুচোর আটক না হওয়ায় স্থানীয় প্রশাসনের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এলাকাবাসী।



স্থানীয় সুত্রমতে জানা যায়,সাম্প্রতি রাউৎগাঁও ইউনিয়নের কৌলা গ্রামের দিনমজুর সয়ফল মিয়ার বাড়ির গোয়াল ঘর থেকে গভীর রাতে ৩টি গরু নিয়ে গেছে চোরেরা। তিনি প্রতিদিনের মতো সকালে ঘুম থেকে উঠে তার পরিবারের আয়ের একমাত্র সম্বল গরু গুলো না দেখে বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন। একই গ্রামের জমির আলীর ২ টি,পাশাপাশি আরেক কৃষক কামরুল ও ছৈয়দ আলীর ২টি মহিষ চুরি হয়েছে।

ভবানীপুর গ্রামের মাসুক মিয়া,সৈয়দ সফাত আলী,মৃত কাদির আলীর পালিত ৩ টি, নর্তন গ্রামের রুহুল আমিনের ১ টি,পালগ্রামের মনির মিয়া, উস্তার মিয়ার ৪টি,রাউৎগাঁও গ্রামের মুজিব মিয়ার ২ টি গরু রাতের আধাঁরে নিয়ে গেছে।

কৌলা গ্রামের জমির আলী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আইন শৃংখলার দায়িত্বে থাকা পুলিশের অবহেলার কারনে গরু চোর সিন্ডিকেটের সদস্যরা সক্রিয় হয়ে উঠেছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মোঃ তালেব আলী বলেন, আমাদের এলাকায় গরু চুরির ঘটনা ঘটায় স্থানীয় এলাকাবাসীর মধ্যে আতংক বিরাজ করছে। সাম্প্রতি যেভাবে গরু চুরি হচ্ছে আইন শৃংখলা রক্ষার জন্য পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুরো ইউনিয়নে পুলিশ ফোর্স বৃদ্ধি করা জরুরী।

রাউৎগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল জামাল সাম্প্রতি গরু চুরির বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে মুঠোফোনে বলেন, পুলিশ প্রশাসনকে অবগত করে গরু চুরি প্রতিরোধে আমরা প্রয়োজনী প্রদক্ষেপ গ্রহণ করছি।

Comments

comments

পড়া হয়েছে 378 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত