কুলাউড়ার বরমচালে মাদরাসার গাছ কেটে নিলেন ইউপি চেয়ারম্যান!

বিশেষ প্রতিনিধি,সংবাদমেইল২৪.কম | ০৭ নভেম্বর ২০১৮ | ৮:৩৫ অপরাহ্ন
অ+ অ-

কুলাউড়া উপজেলার বরমচাল ইউনিয়নের রফিনগর মাসুক মিয়া ইবতেদায়ী মাদরাসার বিভিন্ন প্রজাতির ৮০ টি গাছ কেটে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে বরমচাল ইউপি চেয়ারম্যান,উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল আহবাব চৌধুরী শাহজানের বিরুদ্ধে।

এব্যাপারে মাদরাসার সুপার বরদ উদ্দিন আহমদ তালুকদার বাদী হয়ে কুলাউড়া থানা ও কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।



লিখিত অভিযোগ থেকে জানা যায়, বরমচাল ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল আহবাব চৌধুরী শাহজান গত ৪ নভেম্বর সকালে ১০-১২ জনকে নিয়ে মাসুক মিয়া ইবতেদায়ী মাদরাসায় প্রবেশ করে মাদরাসার জমি দখলের চেষ্টা করেন। এসময় মাদরাসার শিক্ষকরা বাঁধা দিলে তিনি মাদরাসার সৌন্দর্য্য রক্ষার্থে রোপনকৃত আকাশমনি,বেলজিয়ামসহ প্রায় ৩-৪ বছরের বিভিন্ন প্রজাতির ৮০ টি গাছ কেটে নিয়ে যান। পরে মাদরাসার সুপার বরদ উদ্দিন আহমদ তালুকদার বাদী হয়ে কুলাউড়া থানা ও কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল আহবাব চৌধুরী শাহজানের সঙ্গে তার ব্যবহৃত মুঠো ফোন (০১৭১১৬৬৯৭২৬) নাম্বারে ০৭ নভেম্বর বিকেল ৫ টায় একাদিক বার যোগাযোগ করলেও তিনি ফোন ধরেন নি।

মাদরাসার প্রতিষ্টাতা মরহুম আব্দুছ সহিদ (মাসুক মিয়া)’র পুত্র যুক্তরাজ্য প্রবাসী জাতিসংঘের তথ্য ও প্রযুক্তি শাখার সাবেক প্রোগ্রাম ডিরেক্টর হায়াত শহীদ শিপন মুঠোফোনে (০৭ নভেম্বর) বুধবার সন্ধ্যায় জানান, দীর্ঘদিন থেকে চেয়ারম্যান আহবাব চৌধুরী শাহজান আমাদের পরিবারকে নানাভাবে হয়রানী করে আসছেন। এর পেক্ষিতে ওই দিন উনার সাঙ্গ-পাঙ্গ লাটিয়াল বাহিনী নিয়ে জোর পূর্বক কোনো অনুমতি ছাড়াই মাদরাসার গাছগুলো কেটে নিয়ে আসেন। আমরা এর সঠিক বিচার দাবী জানাচ্ছি।

কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল লাইছ (০৭ নভেম্বর) বুধবার বিকেলে বলেন,অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

Comments

comments

পড়া হয়েছে 1287 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত