শ্যালিকা ও শ্বাশুড়ী আহত

কুলাউড়ায় স্বামীর ছুরিকাঘাতে স্ত্রী খুন : স্বামী আটক

স্টাফ রিপোর্টার,সংবাদমেইল২৪ | ২৪ অক্টোবর ২০১৭ | ৩:৩৯ পূর্বাহ্ণ
অ+ অ-

কুলাউড়ায় স্বামীর ছুরিকাঘাতে স্ত্রী খুন হয়েছে। এতে আহত হয়েছেন শ্বাশুড়ী সোনাজান বিবি (৫৫) ও শ্যালিকা নাজমা বেগম সোনিয়া (১২) । এদিকে গভীর রাতে পাষন্ড স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ ।

নিহত ওই গৃহবধুর নাম নাছিমা বেগম (৩০)।

২৩ অক্টোবর সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়নের আদমপুর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

সরজমিনে গেলে জানাযায়, সোমবার রাতে একই ইউনিয়নের নিহত নাছিমা বেগমের পাষন্ড স্বামী রফিক শ্বশুড় বাড়ীতে ঢুকে স্ত্রীর উপর ধারালো ছুরি দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপাতে থাকে, নাছিমর চিৎকার শুনে শ্বাশুড়ী সোনাজানবানু, ও শ্যালিকা নাজমা বেগম থাকে বাধা দিত আসলে তাদের কেও এলোপাতাড়ি কুপাতে থাকে। ঘটনাস্থলেই মারা যান নাছিমা বেগম।

তাদের চিৎকার শুনে আশেপাশের বাড়ির লোকজন ছুটে এলে রফিক পালিয়ে যায়। পরে আহত সোনাজানবানু ও নাজমাকে উদ্ধার করে কুলাউড়া হাসপাতালে নিয়ে আসলে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক সোহেল আহমদ নাজমার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়া সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

হাসপাতালে সেনাজানবানু ও তাঁর ছেলে গিয়াস মিয়া জানান,একই ইউনিয়নের লোহাইউনি গ্রামের তাজুল মিয়ার পুত্র রফিক মিয়ার সাথে নাসিমার বিয়ে হয়। তাদের ঘরে ৪টি ছেলে সন্তান রয়েছে। কয়েকদিন ধরে নাছিমার সাথে রফিকের মনোমালিন্য চলছিলো। গত দু’সপ্তাহ আগে রফিক নাছিমাকে চার ছেলেসন্তানসহ বাপের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়।

এলাকাবাসীর ধাওয়ায় পাষন্ড রফিক দৌড়ে পাশের বদনা বিলে ঝুপের মধ্যে লুকিয়ে তাকে। পরে পুলিশ ও এলাকাবাসীর কয়েক ঘন্টা চেষ্টার পর রাত ২টার দিকে ছুরিসহ আটক করা হয়।

ব্রাহ্মণবাজার এর স্থানীয় ইউপি সদস্য কামাল হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

কুলাউড়া থানার ওসি তদন্ত বিণয় ভূষণ জানান, আমরা ঘাতক রফিককে আটক করেছি। আহতদের হাসপাতলে পাঠানো হয়েছে।

Comments

comments

পড়া হয়েছে 705 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত