কমলগঞ্জে রাস্তার উপর স্ট্যান্ড ও যানবাহন, দুর্ঘটনার আশঙ্কা

জয়নাল আবেদীন,সংবাদমেইল২৪.কম | ২২ মে ২০১৮ | ৮:১৯ অপরাহ্ণ
অ+ অ-

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগরসহ বিভিন্ন বাজারে রাস্তার উপর স্ট্যান্ড ও যানবাহন রাখায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন পথচারী ও স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থীরা। যে কোন সময় দুর্ঘটনার আশঙ্কা রয়েছে। যানবাহন রেখে রাস্তা দখল করে স্ট্যান্ড স্থাপন করায় জিম্মি হয়ে পড়েছেন যাত্রী সাধারণ।

সরেজমিনে দেখা যায়, রোডস এন্ড হাইওয়ের শমশেরনগর চৌমোহনা থেকে শ্রীমঙ্গল-ভানুগাছ-কুলাউড়া সড়কে ও শমশেরনগর রেলস্টেশন এলাকায় মৌলভীবাজার-মুন্সীবাজার গামী সিএনজি-অটোরিক্সা স্ট্যান্ড ও সড়কের গাঁ ঘেষে গড়ে উঠছে নানা প্রতিষ্ঠান। এসব স্ট্যান্ডকে ঘিরে রাস্তা দখল করে ও দু’পাশে যত্রতত্রভাবে রাখা হয়েছে সিএনজি-অটোরিক্সা, ট্রাক, পিকআপ ভ্যান।

উপজেলার শমশেরনগর চৌমোহনা দিয়ে স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার হাজার হাজার শিক্ষার্থী নিয়মিত যাতায়াত করেন। অপরিকল্পিতভাবে সড়কের গাঁ ঘেষে প্রশাসনের নাকের ডগায় গড়ে উঠছে যানবাহন সমুহের অফিস ও স্ট্যান্ড। সকল প্রকার যানবাহন এ রাস্তা দিয়ে চলাচল করার কারনে দু’টি গাড়ি ক্রসিং করা সম্ভব হয় না। ফলে অধিকাংশ সময়েই দুর্ঘটনা ও যানজট দেখা দেয়। পথচারী ও শিক্ষার্থীদের রাস্তার পাশ দিয়ে হাঁটাচলাও বন্ধ হয়ে পড়ে।

সুজা মেমোরিয়াল কলেজের শিক্ষার্থী নিলীমা সুলতানা, সালমা আক্তার, হাজী মো. উস্তওয়ার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শাপলা আক্তার, চামেলী আক্তার, বিএএফ শাহিন কলেজের নাফিসা সুলতানা, ব্যবসায়ী সিদ্দিকুর রহমান, পথচারী রুমেল আহমদ, শিক্ষক বিপ্লব ভূষন দাস বলেন, শমশেরনগর চৌমোহনা থেকে ভানুগাছ ও কুলাউড়ার সড়কের বাজার পর্যন্ত বিভিন্ন যানবাহনের দখলে রেখেছে। যত্রতত্র যানবাহন রাখার কারনে রাস্তার পাশ দিয়ে হেঁটে চলাও যায় না। যেকোন মুহুূতে দুর্ঘটনার আশঙ্কা রয়েছে। শিক্ষার্থীরা বলেন, রাস্তার দু’পাশ থেকে গাড়ি আসলে মরনের ঝুঁকি নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যাতায়াতের এই স্থানটি খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। এখানে গাড়ি আসলে দু’পাশে দাঁড়ানোর মতো জায়গাও নেই।

শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ অরুপ রায় চৌধুরী বলেন, এই বিষয়টি নিয়ে যানবাহন চালকদের বার বার বলা হয়েছে। তাছাড়া ব্যবসায়ী সমিতি ও স্থানীয় সচেতন মহলকেও যত্রতত্র স্ট্যান্ড ও যানবাহন বন্ধে সহযোগিতা প্রদানের আহ্বান জানিয়েছি।

কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হক বলেন, এ বিষয়ে শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জের সাথে কথা হয়েছে। শীঘ্রই অভিযান পরিচালনা করা হবে।

Comments

comments

পড়া হয়েছে 344 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত