ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান-মেম্বার সংঘর্ষ, মেম্বারের মৃত্যু

সিলেট প্রতিনিধি,সংবাদমেইল২৪.কম | ০৪ জুলাই ২০১৭ | ৯:০১ পূর্বাহ্ণ
অ+ অ-

সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার রামপাশা ইউনিয়নে সরকারি বরাদ্দ নিয়ে চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলমগীর এবং ২ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ইমাম উদ্দিনের মধ্যে সংঘর্ষে তাজ উল্লাহ (৫৫) নামে ওই ইউপির এক সদস্য নিহত হয়েছেন।

সোমবার বিকেলে রামপাশা ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়েই এ ঘটনা ঘটে। এতে আহত হয়েছেন আরও দুজন। নিহত তাজ উল্লাহ মনোহরপুর গ্রামের মৃত হাজী জহির আলী মেম্বারের ছেলে।



তবে তার শরীরে গুরুত্বর আঘাতের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন বিশ্বনাথ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলমগীর এবং ইউপি সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ইমাম উদ্দিনের মধ্যে আধিপত্য বিস্তার ও বিভিন্ন কারণে দ্বন্দ্ব চলছিল। চেয়ারম্যান এবং ইউপি মেম্বার একই গ্রামের হওয়ায় এ দ্বন্দ্ব চরম আকার ধারণ করে।

এদিকে, সোমবার সকালে পরিষদের ৯ ইউপি সদস্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে ইমাম উদ্দিন মেম্বারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব দেন। অপরদিকে দুপুরের দিকে ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান এবং মেম্বারদের মধ্যে বৈঠকের আয়োজন করা হয়। এসময় চেয়ারম্যান আলমগীর এবং মেম্বার ইমাম উদ্দিনের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে চেয়ার ছোড়াছুড়ি ও সংঘর্ষ হয়। এতে চেয়ারম্যান আলমগীর, ইউপি সদস্য ইমাম উদ্দিন এবং তাজ উল্লাহ আহত হন। পরে তাদের সিলেটের দক্ষিণ সুরমার নর্থ-ইস্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাজ উল্লাহ মেম্বারকে মৃত ঘোষণা করেন।

এবিষয়ে বিশ্বনাথ থানার ওসি মনিরুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় কোনো পক্ষ এখনো মামলা করেনি। এলাকার উত্তেজনা এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। নিহতের মরদেহ বর্তমানে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে আছে। মরদেহ ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে জানান তিনি।

সংবাদমেইল২৪.কম/এমএস/এন আই

Comments

comments

পড়া হয়েছে 737 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
x