কোড পরিবর্তনে ৪৫ কলেজে ৪১৫ শিক্ষক নিয়োগের সুযোগ

বিশেষ প্রতিনিধি,সংবাদমেইল২৪.কম | ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | ১০:৩৬ পূর্বাহ্ন
অ+ অ-

ডিগ্রি স্তরে উন্নীত হওয়ার পর ৪৫ টি কলেজে ৪১৫ জন শিক্ষক-কর্মচারি নিয়োগ দেয়ার সুযোগ সৃষ্টি হবে। প্রায় দশ বছর চিঠি চালাচালি, তদন্ত ও অনুসন্ধানের পর  শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আদেশে ৪৫ টি উচ্চমাধ্যমিক কলেজের কোড পরিবর্তন হয়ে ডিগ্রি স্তরে উন্নীত হচ্ছে।

১০ বছরের বেশি সময় আগে ৪৫টি উচ্চমাধ্যমিক কলেজে অতিরিক্ত শিক্ষক নিয়োগ দিয়ে এমপিওভুক্ত করা ঘুষের বিনিময়ে। ইএমআইএস সেলের কর্মকর্তাদের সহায়তায় কোড পরিবর্তন করা হয় অবৈধভাবে। পরবর্তীতে অবৈধভাবে কোড পরিবর্তনের বিষয়টি ধরা পড়ে। সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময়ে দুর্নীতি দমন কমিশন এসব অভিযোগের তদন্ত শুরু হয়। নানা ধাপ পেরিয়ে সংসদীয় কমিটির সুপারিশ, অর্থ ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তের পর অবৈধ কোড বৈধ করার সুযোগ দেয়া হয়।



মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়,  ১৮ সেপ্টেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আদেশ পেয়ে কোড পরিবর্তনের ফাইল অনুমোদন করে বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) ইএমআইএস সেলে পাঠিয়েছেন মহাপরিচালক ড. এস এম ওয়াহিদুজ্জামান। ২৫ সেপ্টেম্বরের এমপিওর সভায় উত্থাপন হবে বিষয়টি।

অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, ৪৫টি কলেজে বর্তমানে এমপিওভুক্ত জনবল ১৮৯০ জন। কোড পরিবর্তন হলে অতিরিক্ত ৪১৫ জন নিয়োগের সুযোগ থাকবে। এর মধ্যে উপাধ্যক্ষ ৪৫ জন, প্রভাষক ২৩৮, গ্রন্থাগারিক ২৭, সহকারি গ্রন্থাগারিক ৪ জন। তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারি ৩০ জন ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারি ৭১জন। এসব পদে নিয়োগ দিলে এমপিওবাবদ সরকারের বার্ষিক অতিরিক্ত খরচ হবে দশ কোটি টাকার বেশি।

তবে, প্রভাষক পদটি যেহেতু এন্ট্রি লেভেলের তাই এ পদে নিয়োগ দেয়ার ক্ষমতা বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষের হাতে। বাদবাকী পদগুলোতে গভর্নিং বডিই নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ।

৪৫টি কলেজ: চাপাইনবাবগঞ্জের নাচোল কলেজ; বগুড়ার মোকামতলা মহিলা কলেজ ও হাটকড়াই কলেজ; নওগাঁর চৌরাট শিবপুর বরেন্দ্র কলেজ; রাজশাহীর ইউসুফপুর কলেজ, প্রেমতলী কলেজ, হাটরামচন্দ্রপুর কলেজ; সিরাজগঞ্জের চালিতাডাঙ্গা মহিলা কলেজ, উদগারী মহাবিদ্যালয়, সিমলা কলেজ; পাবনা সদরের পাবনা ইসলামিয়া কলেজ ও আটঘরিয়ার পারখিদিরপুর কলেজ। দিনাজপুরের বিরল কলেজ; নীলফামারীর সৈয়দপুর মহিলা কলেজ, কামারপুকুর কলেজ ও সোনারায় সঙ্গলশী কলেজ। কুড়িগ্রামের রাজারহাট মহিলা কলেজ। পঞ্চগড়েরর পাথরাজ মহাবিদ্যালয়। গাইবান্ধার সদুল্যাপুর গার্লস কলেজ। রংপুরের মাওলানা কেরামত আলী কলেজ। গাজীপুরের রোভারপল্লী কলেজ। মুন্সীগঞ্জের লৌহজং কলেজ। মানিকগঞ্জের আদর্শ মহাবিদ্যালয়। জামালপুরের দিগপাইট শামছুল হক কলেজ। নরসিংদীর পলাশ শিল্পাঞ্চল কলেজ। টাঙ্গাইলের পাচপোটাল কলেজ। নেত্রকোনার আবু আব্বাস কলেজ। মাদারীপুরের চর মুগুরিয়া মহাবিদ্যালয়। কুষ্টিয়ার নুরুজ্জামান বিশ্বাস কলেজ ও মীরপুর মহিলা কলেজ। বাগেরহাটের সুন্দরবন মহিলা কলেজ ও শরনখোলা কলেজ। সাতক্ষীরার মুন্সীগঞ্জ কলেজ, ঝাউডাঙ্গা কলেজ ও ভালুকা চাদপুর আদর্শ কলেজ। খুলনার আলাইপুর কলেজ। কুমিল্লার চানমিয়া মোল্লা কলেজ ও নাঙ্গলকোট হাসান মেমোরিয়াল কলেজ। চাঁদুপুরের গৃদাকালিন্দিয়া হাজেরা হাসমত কলেজ। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর মহাবিদ্যালয়। চট্টগ্রামের উত্তর সাতকানিয়া জা. আ. চৌধুরী কলেজ। সিলেটের জৈন্তাপুর তৈয়ব আলী কলেজ ও বিশ্বনাথ কলেজ। হবিগঞ্জের আলিফ সোবহান চৌধুরী কলেজ ও নবীগঞ্জ কলেজ।

সংবাদমেইল/এসএ/এনএস

Comments

comments

পড়া হয়েছে 1055 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত